করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন প্রিন্স চার্লস

|

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ব্রিটেনের যুবরাজ চার্লস। করোনার উপসর্গ দেখা দেয়ার পর স্বাস্থ্য পরীক্ষায় তার শরীরে এই ভাইরাসের অস্তিত্ব পাওয়া গিয়েছে। এরপর, পরীক্ষা করা হয় চার্লসের স্ত্রী ক্যামিলাকে। করোনাভাইরাস পাওয়া না গেলেও আইসোলেশনে রাখা হয়েছে তাকেও৷

রাজ পরিবারের তরফ থেকে এক বিবৃতিতে দিয়ে জানানো হয়েছে, কয়েকদিন ধরেই অসুস্থ বোধ করছিলেন প্রিন্স। তবে উপসর্গ তেমন জটিল ছিল না। তবুও স্কটল্যান্ডে নিজেকে আইসোলেশনে রেখেছিলেন তিনি ৷ গৃহবন্দি হয়েই কাজ করছিলেন তিনি।

রাজ পরিবারে তরফ থেকে আরও জানানো হয়েছে, প্রিন্স চার্লস রাষ্ট্র শাসনের কাজে মাঝে মাঝে নানা মানুষজনের সঙ্গে দেখা করতেন। বহু বৈঠকেও অংশ নিয়েছিলেন। কীভাবে তার শরীরে এই ভাইরাস চলে এসেছে, সেটি নির্ধারণ করা খুবই কঠিন কাজ। প্রিন্স চার্লস বর্তমানে স্ত্রী ডাচেস অব কর্নওয়াল-সহ স্কটল্যান্ডে স্বেচ্ছা আইসোলেশনে আছেন।

বুধবার ন্যাশনাল হেলথ সার্ভিসের কর্মীরা প্রিন্স ও তার স্ত্রীর শরীরের পরীক্ষা করেন। সেখানেই ধরা পড়ে চার্লসের করোনা আক্রান্ত হওয়ার বিষয়টি।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, প্রিন্স চার্লস আক্রান্ত হওয়ার কিছুদিন আগেই তার সাথে রানি এলিজাবেথের সাক্ষাৎ হয়েছিল। তবে, বাকিংহাম প্যালেস জানিয়েছে, রানির শারীরিক অবস্থা ভালো। তিনি সুস্থ থাকার বিধিবিধান মেনে চলছেন।









Leave a reply