স্বাস্থ্যমন্ত্রী বললেন, এখনো পিপিই অতটা দরকার নেই

|

স্বাস্থ্যমন্ত্রী ড. জাহিদ মালেক। ফাইল ছবি।

দেশে এখনও পারসোনাল প্রোটেকশন ইকুইপমেন্টের (পিপিই) তেমন প্রয়োজন নেই বলে মন্তব্য করেছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী ড. জাহিদ মালেক।

সোমবার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে করোনা পরিস্থিতি নিয়ে ব্রিফিংয়ে ডাক্তারদের ব্যক্তিগত নিরাপত্তা সরঞ্জাম (পিপিই) সংকট নিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, চীনে যখন করোনাভাইরাস ধরা পড়েছিল, তখন তাদের কাছেও পিপিই ছিল না। এখনো আমাদের পিপিই অতটা দরকার নেই।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, আমাদের আগে থেকেই প্রস্তুতি ছিল বলেই ২০ হাজার মানুষকে কোয়ারেন্টাইন করেছি। তিন মাস আগে থেকেই আমরা ল্যাব তৈরির পরিকল্পনা নিয়ে রেখেছিলাম। ল্যাব আমাদের আছে, কিন্তু এখন বাড়তি ল্যাব করছি। কাজেই কোনো ল্যাবের টেস্ট বাদ নেই।

এ সময় গণমাধ্যমের উদ্দেশে তিনি বলেন, আপনারা শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধের জন্য অনেক লিখেছেন, চাপ তৈরি করেছেন। কিন্তু স্কুল বন্ধ দেওয়ার পরে আমরা কী দেখলাম? সবাই বেড়াতে চলে গেল। আপনারা বেড়াতে যাওয়ার বিষয়টি নিয়ে লিখলেন না। স্কুল বন্ধ দেওয়া হয়েছিল ঘরে থাকার জন্য, বেড়াতে যাওয়ার জন্য না।

উল্লেখ্য, করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার সাথে সাথে চিকিৎসক এবং রোগীর সেবায় নিয়োজিতদের সুরক্ষা সরঞ্জামের সংকটের বিষয়টি সামনে উঠে এসেছে। চিকিৎসক, নার্স ও হাসপাতালের কর্মীদের মধ্যে আতঙ্ক ও ক্ষোভ বিরাজ করছে। সুরক্ষা সরঞ্জামের সংকট কাটাতে ইতিমধ্যে পারসোনাল প্রোটেকটিভ ইকুইপমেন্ট (পিপিই) বা বিশেষ সুরক্ষিত পোশাক তৈরির উদ্যোগ নিয়েছে পে ইট ফরোয়ার্ড, মানুষ মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন, বুয়েট অ্যালামনাইসহ আরও কিছু সংগঠন।









Leave a reply