মৌলভীবাজারে এখনও অনেক প্রবাসী বিয়ে, কেনাকাটায় ব্যস্ত

|

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি:
প্রবাসী অধ্যুষিত জেলা মৌলভীবাজারে হোম কোয়ারেন্টাইন নির্দেশনায় আছেন ৩১৭ জন। এদের বেশিরভাগই করোনা আক্রান্ত বিভিন্ন দেশ থেকে আগত।

জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের হিসেব মতে, শুক্রবার পর্যন্ত জেলায় স্বাস্থ্য বিভাগের হোম কোয়ারেন্টাইন নির্দেশনায় আছেন ৩১৭ জন। এর মধ্যে শুধু বৃহস্পতিবার ১০১ জনকে কোয়ারেন্টাইনে নির্দেশনায় থাকতে বলা হয়েছে।

এর আগে হোম কোয়ারেন্টাইনে ছিলেন ২১৬ জন। এদের বেশিরভাগই বিদেশ ফেরত। অভিযোগ রয়েছে- করোনা সন্দেহে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা কিছু প্রবাসী ১৪ দিন হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশনা না মেনে জনসমাগমে ঘোরাফেরা করছেন। অনেকে বিয়ে, কেনাকাটায়ও ব্যাস্ত রয়েছেন এখনও।

এরমধ্যে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে কয়েকজনকে জরিমানা করেছে প্রশাসন। জোর করে পাঠিয়ে দেওয়া হচ্ছে হোম কোয়ারেন্টাইনে।

মৌলভীবাজার সিভিল সার্জন কার্যালয় সুত্রে জানা গেছে, কোয়ারেন্টাইন নির্দেশনায় থাকা ৩১৭ জনের মধ্যে সদর উপজেলায় ২৬ জন, জুড়ী উপজেলায় ১৯ জন, কুলাউড়ায় ৫২ জন, বড়লেখায় ৩২ জন, শ্রীমঙ্গলে ৮১ জন, কমলগঞ্জে ৬৫ জন এবং রাজনগরে ৪২ জন রয়েছেন। এদের বেশিরভাগই বিদেশ ফেরত।

বিদেশ ফেরত প্রবাসীদের নিকট আত্মীয়ও রয়েছেন কয়েকজন, যারা তাদের সংস্পর্শে ছিলেন। তবে কোয়ারেন্টাইনে থাকা কারো শরীরে এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাসের লক্ষণ বা উপসর্গ মেলেনি।

সিভিল সার্জন কার্যালয়ের ডা. রোকশানা ওয়াহিদ রাহি বলেন- নিবিড় পর্যবেক্ষনে রয়েছেন হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা ব্যক্তিরা। এছাড়া করোনা প্রতিরোধে ব্যাপক প্রচারণা চলছে। নিজেরা সতর্ক থাকুন, সচেতন হোন, পরিচিতজন বিদেশ থেকে আসলে হোম কোয়ারেন্টাইন মেনে চলতে পরামর্শ দিয়ে সাহায্য করার আহবান জানান।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসার পূর্বপ্রস্তুতি হিসেবে জেলায় বিভিন্ন হাসপাতালে ১১৬টি বেড প্রস্তুত রাখা হয়েছে।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply