বেশি দামে চাল বিক্রি: লাকসামে ১২ আড়তে ৩ লাখ ৮৫ হাজার টাকা জরিমানা

|

কুমিল্লা ব্যুরো:
করোনাভাইরাস সংকটকে পূঁজি করে অবৈধ মজুদ ও চালের দাম অস্বাভাবিকভাবে বৃদ্ধির দায়ে কুমিল্লার লাকসামে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান পরিচালিত হয়েছে। এ সময় ১২টি চালের আড়তকে ৩লাখ ৮৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

আজ বৃহস্পতিবার উপজেলা প্রশাসন ও পৌর প্রশাসেনর যৌথ অভিযানে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট একেএম সাইফুল আলম।

করোনাভাইরাসে দোকানপাট বন্ধ হয়ে যেতে পারে এমন আতঙ্কে মানুষ নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্র কিনে সংগ্রহে রাখছেন। এ সুযোগে চাল পেয়াজসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্র এবং খাদ্য পন্যের দাম বাড়িয়ে দেয় কিছু অসাধু ব্যবসায়ী।

লাকসাম উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট একেএম সাইফুল আলম জানান, গত কয়েকদিন যাবৎ চালসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের মূল্য বৃদ্ধি ও গুদামজাত করনের সংবাদে পেয়ে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়।

তিনি জানান, লাকসাম বাজারের মেসার্স নিতাই চালের আড়ৎ ১ লাখ, পুলিন বিহারী চালের আড়ৎ ১ লাখ, মেসার্স মা ট্রেডার্স চালের আড়ৎ ৫০ হাজার, মেসার্স মাওলানা আবদুল মতিন চালের আড়ৎ ২০ হাজার, মিয়াজান চালের আড়ৎ ২০ হাজার, মেসার্স পুতুল সাহা চালের আড়ৎ ২০ হাজার, মেসার্স হৃদয় ষ্টোর চালের আড়ৎ ২০ হাজার, মেসার্স সোহরাব ষ্টোর ১৫ হাজার, মাসুম ব্রাদার্স ১০ হাজার, মেসার্স আবুল কালামের চালের আড়ৎ ১০ হাজার, নিতাই সাহার চালের আড়ৎ ১০ হাজার এবং শংকর রায়ের চালের আড়ৎ ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।









Leave a reply