করোনাভাইরাস: পটুয়াখালীতে অন্য জেলার অধিবাসীদের প্রবেশে প্রশাসনের নিষেধাজ্ঞা

|

পটুয়াখালী প্রতিনিধি
করোনা প্রতিরোধে সর্বোচ্চ সতর্কতার জন্য কুয়াকাটা পর্যটন এলাকার সকল হোটেল-মোটেল বন্ধের নির্দেশনার পর এবার পটুয়াখালী জেলায় সড়ক ও নৌপথে বহিরাগত অর্থাৎ অন্য জেলার বাসিন্ধাদের জেলায় প্রবেশের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে। ইতিমধ্যে ঢাকা-পটুয়াখালী নৌরুটে চলাচলরত সকল যাত্রীবাহী ডাবল ডেকারের সকল লঞ্চের মালিকসহ সংশ্লিষ্টদের জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে এ নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

পাশাপাশি নির্দেশনা অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণেরও কথা জানিয়েছেন জেলা পুলিশ সুপার। পুলিশের পক্ষ সচেতনতা নিয়ে মাইকিং চালানো হচ্ছে। সাবান দিয়ে হাত ধুয়ে থানায় প্রবেশের ব্যতিক্রমধর্মী ব্যবস্থাও করা হয়েছে।

এরআগে বুধবার রাত আটটায় কলাপাড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. মুনিবুর রহমান সরকারের দেওয়া এসব নির্দেশনা পালনের জন্য মাইকিং করেছেন। হোটেল মালিকদের পর্যটকের ভ্রমণ বন্ধে বৃহস্পতিবার থেকে নতুন হোটেল বুকিং বন্ধের নির্দেশনাসহ যারা এখন অবস্থান করছেন তাদের কুয়াকাটা ছাড়তে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে, সড়ক ও নৌপথে অন্য জেলার কোন লোক পটুয়াখালী জেলায় যেন না আসে। যদি এসে থাকে তবে তাদেরকে লঞ্চ বা গাড়িতেই রেখে পুনরায় ফেরত পাঠাতে হবে। কোন উপায়ই অন্য জেলার কোন লোক যেন পটুয়াখালী জেলায় না আসতে পারে সেজন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

এর পাশাপাশি পটুয়াখালী জেলায় পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে জনগনকে গুজবে কান না দিয়ে আতঙ্কিত না হতে বলা হয়েছে।

এদিকে জেলার সকল থানার প্রবেশদ্বারে হাত ধোয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে। সেখানে বেসিং, সাবান, টিস্যু পেপার রাখার ব্যবস্থা করা হয়েছে। এখন থেকে সবাইকে হাত ধুয়ে থানায় প্রবেশ করার জন্য বলা হচ্ছে।

https://www.facebook.com/mind.fresh/videos/10158140137989588/





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply