অবৈধ অভিবাসীর ক্ষেত্রে কঠোর সৌদি, নিঃস্ব হয়ে ফিরছে হাজার হাজার শ্রমিক

|

দেশের সবচেয়ে বড় শ্রমবাজার সৌদি আরব। দেশটিতে কর্মরত বাংলাদেশির সংখ্যা ২৫ লাখের বেশি। মোট প্রবাসী আয়ের ২০ ভাগই আসে এই দেশ থেকে। বর্তমানে অবৈধ অভিবাসীদের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থানে সৌদি আরব। এ কারণে দেশটি থেকে প্রতিদিনই ফিরছে প্রবাসী শ্রমিক। সর্বস্ব হারিয়ে ২ মাসেই দেশে ফিরেছে সাড়ে ৬ হাজারের বেশি।

বৈদেশিক কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরোর তথ্য অনুযায়ী, গেল ৩ বছরে বিদেশে যত মানুষের কর্মসংস্থান হয়েছে তার ৬০ ভাগই সৌদি আরবে। ২০১৯ এ কাজের সন্ধ্যানে বিদেশ গেছে ৭ লাখের বেশি মানুষ। এরমধ্যে প্রায় ৪ লাখের কর্মসংস্থান হয়েছে সৌদিতে। আর চলতি বছরের প্রথম দুই মাসে ৭০ হাজারের মধ্যে ৫১ হাজারই গেছে মধ্যপ্রাচ্যের এই দেশটিতে।

কিন্তু আশঙ্কার বিষয় হচ্ছে, সম্প্রতি দেশটি থেকে ফিরে আসার প্রবণতাও বাড়ছে। এ বছরের দুইমাসেই ফিরে এসেছে ৭ হাজারের হাজারের বেশি। দিনে গড়ে ১১৯ জন কর্মী ফিরছে সৌদি থেকে।

কর্মী ফিরে আসার প্রবণতা অব্যাহত থাকলে প্রভাব পড়বে প্রবাসী আয়ে। এটি ধরে রাখতে দক্ষকর্মী পাঠানোর দিকে মনোযোগ দিতে হবে। একই সাথে কর্মীর অবৈধ হওয়ার প্রবনতা ঠেকাতে নিয়োগকারীকে দায়বদ্ধতার আওতায় আনার কথাও বলছেন তারা।

বিশ্লেষকরা বলছেন, কর্মী ফিরে আসার ঘটনা আশঙ্কাজনক। সৌদির জাতীয় করণের ফলে এই প্রবণতা সামনের দিনে আরো বাড়বে। তাই সরকারকে এর বিকল্প চিন্তা করতে হবে। উদ্যোগ নিতে হবে পূর্নবাসনের।

প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, কর্মী ফিরে আসার প্রবণতা ঠেকাতে কাজ করছে তারা। বৈধভাবে যাওয়া কর্মীদের নিয়োগকারীকে দ্রুত সময়ের মধ্যে আকামা করে দেয়ার আহবান জানিয়েছে মন্ত্রণালয়।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply