ঝিনাইদহে চোরাই মোবাইলসহ নারী ইউপি সদস্য আটক

|

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি:
ঝিনাইদহে ১১টি চোরাই মোবাইলসহ আফরোজা খানম নামের এক ইউপি সদস্য ও তার সহযোগীকে আটক করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার ঝিনাইদহের শৈলকুপার ৬ নং সারুটিয়া ইউনিয়নের শেখেরপাড়া বাখরবারে অভিযান চালিয়ে নিজ বাড়ি থেকে তাকে আটক করা হয়। এ সময় তার সহযোগী মাগুরা জেলার শালিখা উপজেলার তালপুড়ি গ্রামের জিতেন্দ্রনাথের ছেলেকেও আটক করা হয় বলে জানা যায়।

শৈলকুপা থানার উপ পুলিশ পরিদর্শক অমিত কুমার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, মহিলা ইউপি সদস্যকে নিয়ে আরো চোরাই মালপত্র উদ্ধারের জন্য অভিযান চলছে। এর আগে গত জানুয়ারী মাসে শৈলকুপা বাজারের কবিরপুর ভাই ভাই টেলিকমে দুর্র্ধষ মোবাইল চুরির ঘটনা ঘটে। মোবাইল দোকানের ভিডিও ফুটেজ সংগ্রহ করে তিন মাস ধরে বিভিন্ন সোর্সের মাধ্যমে তদন্ত করে যাচ্ছি।

তিনি বলেন, সব তথ্য যাচাই বাছাই করে বৃহস্পতিবার ভোরে ৬নং সারুটিয়া ইউনিয়নের শেখেরপাড়া বাখরবার গ্রামের মহিলা ইউপি সদস্য আফরোজা খানমের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে ১১টি স্মার্ট মোবাইল ফোনসহ তাকে আটক করা হয়। যার অধিকাংশই ভাই ভাই টেলিকমের বলে দেখা যায়।

অমিত কুমার আরও জানান, আফরোজা দীর্ঘদিন মাগুরার শালিখা উপজেলার তালপুড়ি গ্রামের জিতেন্দ্রনাথের ছেলেকে বাড়িতে আশ্রয় দিয়ে তাকে দিয়ে দামি মোবাইল সহ বিভিন্ন ইলেক্ট্রনিক্স জিনিসপত্র চুরি করে আসছেন।

এ বিষয়ে ৬নং সারুটিয়া ইউনিয়নের ইউপি সদস্য ওয়াজেদ আলী জানান, আফরোজা সারুটিয়া ইউনিয়নের সংরক্ষিত ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য। তার নিজ বাড়ি থেকে মোবাইল চুরির ঘটনা ঘটেছে।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply