রবীন্দ্রসঙ্গীত বিকৃত করায় রোদ্দুর রায়ের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ

|

রবীন্দ্রসংগীতকে বিকৃত করার অভিযোগে ভারতীয় ইউটিউবার অনির্বাণ রায়ের ওরফে রোদ্দুর রায়ের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। মঙ্গলবার কলকাতার বেলেঘাটা থানায় এই অভিযোগ দায়ের করেছে ‘শিক্ষক ঐক্য মুক্ত মঞ্চ’ নামে একটি সংগঠন। সূত্র: এনডিটিভি।

গত কয়েকদিন রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের বসন্ত উৎসবে রবীন্দ্রসঙ্গীতের কলির সঙ্গে অশ্লীল শব্দ ব্যবহার নিয়ে তুমুল বিতর্কের সৃষ্টি হয়। এর সূত্র ধরেই ইউটিউবার রোদ্দুর রায়ের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করা হলো। রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘বসন্ত উৎসব’ ঘিরে এই বছর বিতর্কের ঝড় ওঠে। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় ওই বিশ্ববিদ্যালয়ে উপস্থিত কিছু তরুণ-তরুণীর ছবি ভাইরাল হয়। তাতে দেখা যায়, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের গানের কথার সঙ্গে অশ্লীল শব্দ যুক্ত করে পিঠে লিখে বসন্ত উৎসবে ঘুরে বেড়াচ্ছেন কয়েকজন তরুণী। ওই ছবি ঘিরে নিন্দার ঝড় ওঠে।

ওই সংগঠনের এক সদস্য বলেছেন, এই ঘটনা মেনে নেওয়া যায় না। রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের গান বিকৃত করতে এমন অশ্লীল শব্দ ব্যবহারের কোনো অধিকার তার নেই। প্রয়োজনে পশ্চিমবঙ্গের প্রায় সব থানায় আমরা ওর বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করব।

তিনি আরও বলেন, এটা অত্যন্ত দুর্ভাগ্যজনক যে পুলিশ এই ব্যক্তির বিরুদ্ধে এর আগে কোনও আইনি পদক্ষেপ নেয়নি। প্রশাসন পদক্ষেপ না নেওয়ায় এবার আমরাই রোদ্দুর রায়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়েরের সিদ্ধান্ত নিই।

রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের বসন্ত উৎসবের ছবি বিতর্কের পর থেকেই রোদ্দুর রায় নামে এই ব্যক্তিকে নিয়ে আলোচনা-সমালোচনা শুরু হয় সোশ্যাল মিডিয়ায়। সোশ্যাল মিডিয়ায় রবীন্দ্রসঙ্গীতকে বিকৃত করে প্রচার করেন তিনি। তার বিরুদ্ধ অভিযোগ, সেই বিকৃত গানে প্রভাবিত হয়েই পিঠে রবীন্দ্র সঙ্গীতের কলির সঙ্গে ওই ধরনের অশ্লীল শব্দ লিখে বসন্ত উৎসবে যোগ দেন কিছু শিক্ষার্থী।

গত শুক্রবার এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ সিঁথি থানায় অভিযোগ দায়ের করে। বিষয়টির তদন্তের জন্যে একটি বিশেষ তদন্ত দল গঠন করেছে কলকাতা পুলিশ।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply