যেভাবে স্মার্টফোন ও ল্যাপটপ করোনাভাইরাস মুক্ত করবেন

|

করোনাভাইরাসের ঝুঁকি রয়েছে স্মার্টফোন ব্যবহারকারীদের জন্যও। সম্প্রতি জার্নাল অব হসপিটাল ইনফেকশন জানিয়েছে স্মার্টফোনের মাধ্যমেও ছড়াতে পারে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস। ফোনের স্ক্রিন থেকে করোনাভাইরাস সংক্রমণের ঝুঁকি রয়েছে বলে এক প্রতিবেনে জানিয়েছে। ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এ পর্যন্ত ২২টি গবেষণায় দেখা গেছে করোনাভাইরাস ধাতব, গ্লাস এবং প্লাস্টিক জাতীয় বস্তুতে নয় দিন পর্যন্ত বেঁচে থাকতে পারে। এ থেকে একজন সুস্থ ব্যক্তির করোনাভাইরাসে সংক্রমিত হওয়ার আশঙ্কা থাকে। এ জন্য দিনে দুবার অ্যালকোহল মিশ্রিত টিস্যু দিয়ে ফোনের স্ক্রিন পরিষ্কার করার পরামর্শ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। আজকে টিপ্সে স্মার্টফোন বা ল্যাপটপকে করোনাভাইরাস সংক্রমণ থেকে ঠেকাতে প্রয়োজনীয় পরামর্শ-

* ফোনে কথা বলার সময় ইয়ারফোন ব্যবহার করা যেতে পারে। এতে ফোন মুখের সংস্পর্শে আসবে না।

* স্মার্টফোনটি ‘আইপি৬৮’ অনুমোদিত পানি নিরোধক হয় তাহলে প্রতিদিন সাবান-পানি দিয়ে দুবার পরিষ্কার করা যেতে পারে।

* ইয়ারফোন ব্যবহারের পূর্বে অবশ্যই জীবাণুমুক্ত করে নিন।

* ফোন অথবা ল্যাপটপ পরিষ্কারের পর অবশ্যই নিজের হাত ভালোভাবে ধুয়ে নিতে হবে।

* অন্যের গ্যাজেট স্পর্শ করা থেকে বিরত থাকুন এবং নিজের ডিভাইস অন্যদের দেয়া থেকেও বিরত থাকতে পারেন।

* পাবলিক প্লেস কিংবা অফিসের কম্পিউটার ব্যবহার থেকে বিরত থাকুন। তবে ব্যবহার করলে জীবাণুমুক্ত গ্লাভস পরে নিতে হবে।

*একই পকেটে স্মার্টফোন ও রুমাল রাখবেন না। এতে আপনার ডিভাইসে থাকা জীবাণু রুমালের মাধ্যমে সহজে মুখে পৌঁছে যেতে পারে।

*যে কম্পিউটার একাধিক ব্যক্তি বারবার ব্যবহার করেন, সেগুলো যতটা সম্ভব এড়িয়ে চলুন। ক্যাফেতে বসে কম্পিউটার চালালে স্টেরিল গ্লাভস ব্যবহার করুন।

*দিনে অন্তত একবার আপনার ব্যবহৃত ডিভাইসগুলো পরিষ্কার রাখুন। অসুস্থ ব্যক্তির ডিভাইস ধরা থেকে বিরত থাকুন তেমনি নিজের ফোন অন্য কাউকে ব্যবহার করতে দিবেন না।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply