স্বামীর ওপর অভিমান করে শরীরে আগুন: ফেনীতে গৃহবধূর মৃত্যু

|

প্রতীকী ছবি।

ফেনীতে অগ্নিদগ্ধ এক গৃহবধুর মৃত্যু হয়েছে। দাগনভূঞা উপজেলার পূর্ব চন্দ্রপুর মডেল ইউনিয়নের বৈঠারপাড় গ্রামের ওই গৃহবধূ আজ সোমবার চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

পরিবার জানায়, শুক্রবার থেকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজে নেয়ার পর চারদিন চিকিৎসাধীন ছিলেন তিনি।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার রাতে বৈঠারপাড় এলাকার মুজা মিয়ার বাড়ির মো. মোস্তফার প্রবাসী ছেলে ইসমাইল হোসেন রতনের সঙ্গে স্ত্রী শারমীন আক্তারের মনোমালিন্য হয়। এ সময় অভিমান করে রাত ১১টার দিকে শরীরে কেরোসিন ঢেলে শরীরে আগুন ধরিয়ে দেন শারমীন।

হঠাৎ চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এসে তাকে উদ্ধার করে ফেনী জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যায়। অবস্থা আশংকাজনক দেখে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণের নির্দেশ দেন।

পরদিন শুক্রবার সকালে অগ্নিদগ্ধ শারমীনকে চট্টগ্রাম নেয়া হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন থাকার পর সোমবার তার মৃত্যু হয়। নিহত শারমীনের ইমন নামের ১০ বছর বয়সী এক পুত্র সন্তান রয়েছে।

এ বিষয়ে পূর্ব চন্দ্রপুর মডেল ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মাসুদ রায়হান জানান, শরীরে আগুন দিয়ে গৃহবধূর মৃত্যু হয়েছে। স্বামীর সঙ্গে অভিমান করে আগুন দিয়েছেন বলে পরিবারের সদস্যরা তাকে জানিয়েছেন।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply