ভুত ছাড়ানোর নামে কবিরাজের দেয়া আগুনে দগ্ধ যুবক, লড়ছে মৃত্যুর সাথে

|

ভুতছাড়ার নামে কবিরাজের দেয়া কেরোসিনের আগুনে দগ্ধ হয়ে বানভাসা নামের এক যুবক এখন মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছেন। গুরুতর দগ্ধ অবস্থায় রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ন এন্ড প্লাস্টিক সার্জারি বিভাগে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে ওই যুবককে।

হাসপাতাল, পারিবারিক ও পুলিশ সূত্র জানিয়েছে, আজ রোববার বিকেলে পৌনে চারটায় দগ্ধ ওই যুবক বানভাসাকে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তার শরীরের ৭০ ভাগ অংশ পুড়ে গেছে। দগ্ধ যুবক কুড়িগ্রামের মোগলভাষা ইউনিয়নের চর ভেলাকোপা গ্রামের ভেলুমুন্সির পুত্র।

শনিবার রাত ৯ টার দিকে বাড়ির পাশের কবিরাজ মজিবর রহমানের বাড়িতে তুলা রাশি হিসেবে ডেকে নিয়ে যাওয়া হয় ওই যুবককে। সেখানে একজন রোগীর ভুতছাড়ার নামে ওই যুবকের শরীরে ভুতের ভর দিয়ে তার শরীরে আগুন ধরিয়ে দেয় কবিরাজ মজিবর। এতে তার শরীর দগ্ধ হলে প্রথমে স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা করা হয়। অবস্থার অবনতি হলে তাকে রংপুরে আনা হয়।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, ওই কবিরাজের বাড়িতে এর আগেও ওই যুবককে দিয়ে ভুতছাড়ানোর নামে এ ধরণের কাণ্ড করা হয়েছিল। যুবকের ২টি পুত্র ১ একটি কন্যা সন্তান আছে।









Leave a reply