কুমিল্লা সীমান্তে ব্যবসায়ীকে ডেকে নিয়ে হত্যা করল ভারতীয়রা

|

কুমিল্লা সীমান্তে আনোয়ার হোসেন নামে এক ব্যবসায়ীকে পিটিয়ে হত্যা করেছে ভারতীয়রা। পাওনা টাকা দাবি করায় তাকে সীমান্তের ওপারে নিয়ে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেন নিহতের স্ত্রী কোহিনুর আক্তার।

শনিবার বিকেল ৩টায় সোনামুড়া থানার ইউএনসি নগর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। সন্ধ্যায় ঘটনাস্থল থেকে ময়নাতদন্তের জন্য নিহতের মরদেহ নিয়ে যায় ভারতের সোনামুড়া থানা পুলিশ। পরে আইনী প্রক্রিয়া শেষে বিএসএফ নিহতের মরদেহ বিজিবি’র কাছে হস্তান্তর করবে বলে জানায় বিজিবি।

নিহতের স্ত্রী কোহিনুর আকতার ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, নিশ্চিন্তপুর গ্রামের মৃত সেতু মিয়ার ছেলে এবং ৩ মেয়ে ও দুই ছেলের বাবা আনোয়ার মিয়া ব্যবসায়িক কারণে পার্শ্ববর্তী গ্রাম ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের সোনামুড়া থানার ইউএনসি নগরের কামরুলের নিকট টাকা পাওনা ছিলেন। তাদের বাড়ি নো-ম্যান্স ল্যান্ডের এপার-ওপার।

কোহিনুর জানান, দীর্ঘদিন ধরে কামরুল পাওনা টাকা দিয়ে দেব বলে ঘোরাতে থাকে। এক পর্যায়ে শনিবার দুপুর আড়াইটার দিকে টাকা পরিশোধের আশ্বাসে আনোয়ার মিয়াকে ডেকে সীমান্তের ওপারে ইউএনসি নগর গ্রামে নিয়ে যায় কামরুল। সেখানে কামরুলের সাথে টাকা নিয়ে ব্যবসায়ী আনোয়ারের কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে ভারতীয় নাগরিক কামরুল ও তার বন্ধু ফারুক আনোয়ার মিয়াকে পিটিয়ে হত্যা করে।

পরে সীমান্তের ২০৭৮ নং ফোরএস পিলারের ১০ গজের ভিতরে ভারতীয় সীমান্তে লাশ ফেলে পালিয়ে যায় ঘাতকরা।

খবর পেয়ে বিজিবি ও কোতয়ালি মডেল থানা পুলিশ সীমান্তে যায় এবং বিএসএফ এর সাথে এ নিয়ে আলোচনা করে। ঘটনাস্থলে স্থানীয় পাঁচথুবী ইউপি চেয়ারম্যানসহ আশপাশের জনতা ভিড় জমায় এবং তারা ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত ও বিচার দাবি করে।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply