পরিস্থিতি সামাল দিতে পিরোজপুরের বিচারককে বদলি: আইনমন্ত্রী

|

পিরোজপুরের সাবেক এমপি আউয়াল ও তার স্ত্রী জামিন চাইতে গেলে জেলা ও দায়রা জজ আইনজীবীদের সাথে অশালীন আচরণ করেন; এজন্য তাকে স্ট্যান্ড রিলিজ দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক।

বুধবার দুপুরে সচিবালয়ে পিরোজপুরের বিচারককে বদলি বিষয়ে এসব কথা বলেন তিনি। তিনি বলেন, বিচারক বদলিতে আইনের শাসনের ব্যত্যয় হয়নি। তবে উদ্ভুত পরিস্থিতি সামাল দিতে বিচারককে বদলি করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

এসময় তিনি বলেন, বিচারকের অশালীন আচারণের কারণে সেখানে উত্তপ্ত পরিস্থিতি তৈরি হয়। একজন বিচারকের এখতিয়ার আছে জামিন দেয়া, না দেয়া। তবে অশালীন আচারণের এখতিয়ার নেই বলে জানান তিনি। পুরো বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হবে বলেও জানান আইনমন্ত্রী।

উল্লেখ্য, দুদকের করা মামলায় মঙ্গলবার পিরোজপুর-১ আসনের এমপি আব্দুল আউয়াল ও তার স্ত্রীর জামিনের আবেদন নামঞ্জুর করে জেল হাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেন পিরোজপুর জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. আব্দুল মান্নান। সেই রায়ের ঘোষণার পরে আইনজীবীরা আদালত বর্জন করেন। এরপরই, পিরোজপুরের জেলা দায়রা জজ আদালতের বিচারক মোঃ আব্দুল মান্নানকে স্ট্যান্ড রিলিজ করা হয়। ঘটনার ৪ ঘণ্টা পর বিকেল ৪টার দিকে ভারপ্রাপ্ত জেলা ও দায়রা জজ নাহিদ নাসরিন শুনানি শেষে একেএমএ আউয়াল ও তার স্ত্রী লায়লা পারভিনের ২ মাসের জামিন মঞ্জুর করেন।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply