৫ম শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণ মামলায় ৩ জনের যাবজ্জীবন

|

বাগেরহাট প্রতিনিধি
বাগেরহাটে পঞ্চম শ্রেণির এক শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের দায়ে দম্পতিসহ তিনজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। আদালত একই সাথে প্রত্যেক আসামিকে এক লাখ টাকা করে জরিমানা করে। মঙ্গলবার বিকেলে বাগেরহাট নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুন্যালের বিচারক এস এম সাইফুল ইসলাম এই কারাদণ্ড দেন।

আসামিদের উপস্থিতিতে আদালতের বিচারক ওই রায় ঘোষণা করেন।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন, বাগেরহাটের কচুয়া উপজেলার উদানখালী গ্রামের জোনাব আলীর ছেলে আজিবর রহমান (৫০) ও তার স্ত্রী জাহানারা বেগম (৪৩) এবং সদর উপজেলার বাদোখালী গ্রামের আব্দুর রহমানের ছেলে ইউসুফ আলী (৫২)।

মামলার নথির বরাত দিয়ে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী সিদ্দিকুর রহমান খান সাংবাদিকদের বলেন, ২০০৭ সালের ৭ জুলাই কচুয়া উপজেলার উদানখালী গ্রামে পরিবারের কেউ বাড়িতে না থাকার সুযোগে পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থীকে ভাত খাওয়নোর কথা বলে প্রতিবেশী আজিবর রহমান তার বাড়িতে ডেকে নেয়। বাড়িতে ডেকে নিয়ে আজিবরের স্ত্রী জাহানারা বেগম তার ঘরে নিয়ে গানের ক্যাসেট জোরে বাজিয়ে দেয়। ওই সময়ে ঘরে থাকা জাহানারার স্বামী আজিবর ও ইউসুফ পালাক্রমে শিশুটিকে ধর্ষণ করে। পরে আজিবরের বাড়ি থেকে বেরিয়ে মেয়েটি তার মাকে ঘটনা খুলে বললে তার মামা (আতিয়ার রহমান) বাদী হয়ে কচুয়া থানায় তিনজনের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা করেন।

কচুয়া থানার তৎকালীন ওসি মামলার তদন্ত কর্মকর্তা আবু বক্কর সিদ্দিক ধর্ষণের ঘটনার সত্যতা পেয়ে ২০০৭ সালের ২৭ নভেম্বর নারীসহ তিনজনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। আদালতের বিচারক ১২জনের স্বাক্ষ্যগ্রহণ শেষে এই রায় ঘোষণা করেন।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply