ভারত একটি ধর্মনিরপেক্ষ রাষ্ট্র, আমরা একে হিন্দু-মুসলিমে ভাগ করতে পারি না: অমর্ত্য সেন

|

‘রাজধানীতে কেন্দ্রীয় সরকারের নাকের ডগায় যে সহিংসতা চলছে তা নিয়ে আমি খুব চিন্তিত। এভাবে সংখ্যালঘুদের উপর নির্যাতন করার পর যখন পুলিশ তার কর্তব্য পালন করতে না পারে তা আসলেই বিপদজনক ব্যাপার হয়ে দাঁড়ায়।’

সম্প্রতি ভারতের দিল্লিতে সিএএর বিরোধীতা নিয়ে সেখানকার মুসলিম জনগোষ্ঠীর উপর কট্টরপন্থীদের হামলা ও পুলিশের নিষ্ক্রিয়তা নিয়ে শনিবার এমন মন্তব্য করেন ভারতের নোবেল বিজয়ী অর্থনীতিবীদ অমর্ত্য সেন। খবর ভারতীয় গণমাধ্যম ‘দি ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস’র।

অমর্ত্য সেন বলেন, ভারত একটি ধর্মনিরপেক্ষ রাষ্ট্র। এখানে কখনোই হিন্দু-মুসলিম পরিচয় দিয়ে কাউকে ভাগ করা যেতে পারে না।

তিনি বলেন, এই ক্ষয়ক্ষতির কারণ অবশ্যই বের করতে হবে। হয়তো সেখানে পুলিশের দায়িত্ব পালনের যথেষ্ট ঘাটতি ছিল অথবা সরকার সেই পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি।

অমর্ত্য সেন বলেন, সেখানে যারা মারা গেছেন এবং নির্যাতিত হয়েছেন তাদের অধিকাংশই মুসলিম। একজন ভারতীয় নাগরিক হিসেবে আমি কিছুই করতে পারিনি শুধুমাত্র চিন্তা করা ছাড়া।

তিনি বলেন, বিজেপি নেতাদের বিরুদ্ধে দাঙ্গায় উস্কানি দেয়ার জন্য মামলা করার নির্দেশ দেয়ার পরপরই বিচারপতি এস মুরালিধরের পাঞ্জাবে বদলি সংক্রান্ত বিষয় অনেক প্রশ্নের জন্ম দেয়, তবে সবকিছু বিশ্লেষণ ছাড়া এটির কোন উপসংহার টানাও ঠিক হবে না বলে মন্তব্য করেন এই নোবেল বিজয়ী।

এসময় সিএএ বিরোধী বিক্ষোভের ছবি পোস্ট করার জন্য বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলাদেশি শিক্ষার্থী আফসারা আনিকা মিমকে ভারত ত্যাগ করার নির্দেশের সমালোচনাও করেন তিনি। তিনি বলেন গণমাধ্যমের প্রতিবেদন পড়ে যতটুকু জেনেছি তাকে দেশত্যাগের নির্দেশ দেয়ার মতো কোন কারণ ছিলনা।









Leave a reply