ঘের দখলের চেষ্টা, মা‌লিকের তিন পুত্রকে কুপিয়ে জখমের ঘটনায় মামলা, গ্রেফতার ১

|

পটুয়াখালীর কাউয়ারচ‌রে গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে মা‌ছের ঘের দখ‌লের চেষ্টা ও মা‌লিকসহ ৩ জন‌কে কু‌পি‌য়ে আহত করার ঘটনায় স্থানীয় এম‌পির পিএ ত‌রিকুলসহ ২০ জ‌নের বিরু‌দ্ধে মামলা হয়েছে। এ ঘটনায় গ্রেফতার করা হয়েছে একজনকে।

আহত নুর বাহাদু‌রের বাবা মাহবুবুর রহমান বাদী হ‌য়ে গতরাতে মামলা দা‌য়ের ক‌রেন। মামলা‌য়ে প্রধান আসামি করা হ‌য়ে‌ছে স্থানীয় এম‌পি মু‌হিবুর রহমা‌নের ব্য‌ক্তিগত সহকারী মোঃ ত‌রিকুল ইসলাম‌কে। এছাড়াও ঘটনার সময় হামলায় ত‌রিকু‌লের সা‌থে অংশ নেয়া আ‌রও ১৯ জনকে আসামি করা হ‌য়।

এদি‌কে মামলা দা‌য়ে‌রের পরপরই ম‌হিপুর থানা পু‌লিশ সাড়া‌শি অ‌ভিযান চালিয়ে হামলায় জড়িত শা‌হিনকে গ্রেফতার করে। বর্তমা‌নে পু‌লি‌শের অ‌ভিযান অব্যাহত আ‌ছে ব‌লে পু‌রো বিষয়‌টি নি‌শ্চিত ক‌রে‌ছেন ম‌হিপুর থানার ও‌সি তদন্ত মোঃ মাহবুবুর রহমান।

এরআগে বৃহস্প‌তিবার সন্ধ্যা ৭টার দি‌কে পটুয়াখালীর কলাপাড়া উপ‌জেলার ধুলারসর ইউ‌নিয়‌নের চাপ‌লি এলাকার কাউয়ারচ‌রে মা‌ছের ঘের দখল কর‌তে গি‌য়ে ঘের মা‌লিকের তিন পুত্রকে কুপিয়ে জখম করার অভিযোগ উঠে পটুয়াখালী-৪ আসনের এমপির পিএ তরিকুলের বিরুদ্ধে। এতে গুরুতর আহত হয় ঘের মালিক ও স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা মাহাবুবুর রহমানের তিন পুত্র নুর বাহাদুর, তার দুই ভাই সো‌হেল ও জু‌য়েল।

সো‌হেল জানান, ওই এলাকায় প্রায় ৩০ একর জ‌মির উপর মাছ ও কাঁকড়া চা‌ষের জন্য ঘের তৈ‌রি ক‌রে নিয়‌মিত চাষ ক‌রে আস‌ছিলেন তারা। কিছু‌দিন আগে স্থানীয় এম‌পি মু‌হিবুর রহমান মুহিবের পিএ ত‌রিকুল ও তার সাঙ্গপাঙ্গরা ওই ঘের ‌থে‌কে মাছ ও কাঁকড়া লুট ক‌রে ‌নি‌য়ে যায়। প‌রেরদিন গোটা ঘের দখ‌ল কর‌তে গে‌লে আহতরা বাধা দি‌লে পু‌লিশের হস্ত‌ক্ষে‌পে তা থে‌মে যায়। প‌রে পু‌লিশ তদন্ত ক‌রে মালিকপক্ষের অনুকূলে প্র‌তি‌বেদন দি‌লে মা‌লিকরা বৃহস্পতিবার বিকা‌লে মাছের পোনা ছাড়ার জন্য শ্র‌মিক নি‌য়ে কাজ কর‌তে যায়। ‌

সো‌হেল জানায়, সন্ধ্যা ৭টার দি‌কে পিএ ত‌রিকুলসহ প্রায় ৩০ জ‌নের একদল সশস্ত্র যুবক আচমকা তার বড় ভাই, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষার্থী নুর বাহাদুরের ওপর চড়াও হয়। এসময় রামদা দা ও ব‌টি দি‌য়ে বাহাদুরকে কোপাতে শুরু করে তারা। বাধা দিতে গেলে সো‌হেল ও জু‌য়েল‌ হামলার শিকার হন। ধারালো অ‌স্ত্রের আঘা‌তে তাদের চাচা হেলালও আহত হ‌য়ে‌ছেন।

সো‌হেল আ‌রো জানান, আহত অবস্থায় নুর বাহাদুরকে কলাপাড়া হাসপাতা‌লে নেয়ার প‌থে দ্বিতীয় দফা হামলা চালা‌নো হয়। প‌রে প্রাথ‌মিক চি‌কিৎসা শে‌ষে অবস্থার অবন‌তি হ‌লে আশঙ্কাজনক অবস্থায় তা‌দের‌কে ব‌রিশালে পাঠা‌নো হয়।

ত‌বে অ‌ভি‌যোগ অস্বীকার ক‌রেছেন ত‌রিকুল। তি‌নি জানান, ঘটনার সময় তিনি ঢাকায় ছিলেন। আজ সন্ধ্যায় ঢাকা থে‌কে কলাপাড়া গেছেন তিনি।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply