মুখের ব্রণ দূর করবে টুথপেস্ট

|

শুধু দাঁত নয়, ত্বকের পরিচর্যাতেও ব্যবহার করতে পারেন টুথপেস্ট। তবে আমরা অনেকই ত্বকের যত্নে টুথপেস্টের ব্যবহার জানি না। ত্বকের যত্নে টুথপেস্ট থেকে মিলতে পারে অবিশ্বাস্য কিছু সমাধান। বাজার থেকে হয়তো নামিদামি সৌন্দর্যবর্ধক প্রসাধনীও ব্যবহার করে আসছেন। তবে ত্বকের অনেক সমস্যা থেকেই যাচ্ছে।

আসুন জেনে নিই ত্বকের সমস্যা সমাধানে টুথপেস্টের ব্যবহার-

১. ব্রণের সমস্যা সারাতে টুথপেস্ট খুব ভালো কাজ করে। ব্যথাযুক্ত ব্রণের জায়গায় রাতে ঘুমানোর আগে টুথপেস্টের প্রলেপ লাগিয়ে ঘুমান। সকালে উঠে দেখবেন ব্রণের ফোলা ভাব অনেক কমে গেছে আর ব্যথাও অনেকটা ভালো হয়েছে।

২. ধুলো-ময়লা, দূষণ, মেকআপ কারণে ত্বকের রোমকূপ বন্ধ হয়ে। আর দেখা দেয় ব্ল্যাক হেডস। এতে লোপকূপের ছিদ্র বন্ধ হয়ে যায়। যেসব জায়গায় এই হোয়াইট হেডস রয়েছে যেমন– নাক, কপাল, চিবুক— সেসব জায়গায় পুরু করে টুথপেস্টের প্রলেপ লাগান। শুকিয়ে গেলে খুঁটে খুঁটে তুলে ফেলুন। এর পর ভালো করে মুখ ধুয়ে ফেলুন।

৩. বয়স বেড়ে যাওয়া, অতিরিক্ত দুশ্চিন্তা, পর্যাপ্ত বিশ্রামের অভাব, অনিদ্রার কারণে মুখের বলিরেখা দেখা দিতে পারে। টুথপেস্টকে পানিতে মিশিয়ে পাতলা করে নিন। এবার মুখ, গলা ও ঘাড়ে এটির প্রলেপ লাগান। না শুকানো পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। পেস্ট শুকিয়ে গেলে ভালো করে ধুয়ে ফেলুন।

৪. চটজলদি ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করতে টুথপেস্ট খুব ভালো কাজ করে। ত্বকের যত্ন নেবার জন্য যথেষ্ট সময় না থাকে, তা হলে ব্যবহার করুন টুথপেস্ট। সাধারণ ফেসওয়াসের মতোই টুথপেস্ট ব্যবহার করুন এবং প্রচুর পরিমাণে পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন।

তথ্যসূত্র: জিনিউজ





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply