সার উত্তোলন বন্ধ রেখেছে সিরাজগঞ্জের ডিলাররা

|

সার উত্তোলন বন্ধ রেখেছেন সিরাজগঞ্জের ডিলাররা। তারা বলছেন, শক্ত জমাট বাধা সার উত্তোলনের আদেশ প্রত্যাহার না করলে, কোন সারই উত্তোলন করা হবে না। যদিও সার উত্তোলনের জন্য প্রথম বরাদ্দের ৪৫ শতাংশ টাকা ইতিমধ্যেই সরকারি কোষাগারে জমা দিয়েছেন তারা। আর ধান উৎপাদনের ভরা মৌসুমে ইউরিয়া সার উত্তোলন না করলে সার স্বল্পতায় ভুগবে কৃষকেরা।

উত্তরবঙ্গ বাংলাদেশ ফার্টিলাইজার এসোসিয়েশন-বিএফএ’র সদস্যদের অভিযোগ, বিগত সময়ে বিসিআইসি থেকে জমাটবাধা সার জোর করে চাপিয়ে দেয় বিসিআইসি। কিন্তু সেই সার কৃষকের ব্যবহারের অনুপযোগী হবার কারণে লোকসানের মুখে পড়েন তারা। যে কারণে নতুন করে পাকশির গুদাম থেকে এই সার তারা নিতে রাজী নয়। এদিকে নিম্নমানের সার বরাদ্দ বাতিলের জন্য জেলা সার বীজ মনিটরিং কমিটির সভাপতি বরাবর আবেদন করেছেন ডিলাররা।









Leave a reply