ডিআইজি মিজান ও দুদক পরিচালক এনামুলসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র আমলে নিয়েছেন আদালত

|

জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের মামলায় বরখাস্তকৃত ডিআইজি মিজানুর রহমান ও দুদকের পরিচালক এনামুল বাছিরসহ ৪ আসামির বিরুদ্ধে দেওয়া অভিযোগপত্র আমলে নিয়েছেন আদালত। এই মামলায় পলাতক থাকায় ডিআইজি মিজানের স্ত্রী সোহেলিয়া আনার রত্না ও তাঁর ভাই মাহবুবুর রহমানের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে।

ঢাকা মহানগর সিনিয়র স্পেশাল জজ কেএম ইমরুল কায়েস আজ এ আদেশ দেন। এই দুই আসামিকে গ্রেপ্তার করা গেল কি না, সে সক্রান্ত তামিল প্রতিবেদন আগামী ৩ মার্চের মধ্যে জমা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

অন্যদিকে, ঘুষ লেনদেনের মামলায় ডিআইজি মিজান ও দুদক পরিচালক এনামুল বাছিরের বিরুদ্ধে চার্জশিট আমলে নিয়ে আগামী ৪ এপ্রিল অভিযোগ গঠনের শুনানির দিন ধার্য করা হয়েছে।

এর আগে গত ১৯ জানুয়ারি দুদকের পরিচালক শেখ মো. ফানাফিল্ল্যা আসামিদের বিরুদ্ধে চার্জশিট দাখিল করেন। মামলার চার্জশিটে বলা হয়, আসামি এনামুল ২০১৮ সালের ২৯ অক্টোবর থেকে ডিআইজি মিজানের জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগের অনুসন্ধান করছিলেন। অনুসন্ধান চলাকালে এনামুল বাছিরের বিরুদ্ধে ৪০ লাখ টাকা ঘুষ নেয়ার অভিযোগ ওঠে। তাৎক্ষণিকভাবে দুদক একটি তদন্ত কমিটি করে লেনদেনের সত্যতা পায়।

গত বছরের ১৬ জুলাই দুদক আসামি মিজান ও বাছিরের বিরুদ্ধে এ মামলা দায়ের করেন।









Leave a reply