ভোটের লাইনে বর, সঙ্গে বরযাত্রীরাও (ভিডিও)

|

পুরোদমেই চলছে দিল্লির বিধানসভা নির্বাচন। ভারতের রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ, কংগ্রেস সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধি, প্রিয়াঙ্কা গান্ধি, দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল, উপমুখ্যমন্ত্রী মণীশ সিসোদিয়া, কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষ বর্ধন, বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্করসহ বহু বড় বড় রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব এরই মধ্যে ভোট দিয়েছেন। কিন্তু সবকিছু ছাপিয়ে আলোচনা তৈরি করেছে অন্য একদল লোকের ভোট। বিয়ের আগে হবু বর গেলেন ভোট দিতে। তিনি একা নন, তার সঙ্গে ছিলেন বরযাত্রীরাও!

লক্ষ্মীনগর বিধানসভা কেন্দ্রের এই বাসিন্দা ধনঞ্জয় ধ্যানী। গণতন্ত্রের উৎসবে যোগ দিতে তিনি গিয়েছিলেন বরের সাজেই। রীতিমতো নাচ-গান-বাজনা সহযোগে যখন বরযাত্রীরা বরকে নিয়ে নির্বাচনি কেন্দ্রে উপস্থিত হন, তখন অনেকেই অবাক হয়ে যান। দল বরসমেত ভোট দেন বরযাত্রীরা।

এখানেই শেষ নয়। বর ধনঞ্জয় ফোন করেন তাঁর হবু স্ত্রীকেও। সাত পাকে বাঁধা পড়ার আগে ভোটটা দিয়ে যাওয়ার আবেদন জানান তাকে।

জানা গেছে, তাদের বিয়ের কথা পাকাপাকি হয় গত ডিসেম্বরেই। কিন্তু একেবারে ভোটের দিন‌ই বিয়ের দিন পড়বে তা তারা বুঝতে পারেননি।

সবাইকে ভোট দেওয়ার আবেদন জানিয়ে বর ধনঞ্জয় বলেন, পাঁচ বছরে একবারই সুযোগ আসে। তাই আপনারা ভোট দিতে অবশ্যই আসবেন। আমার জানা ছিল না ৮ ফেব্রুয়ারি আমার বিয়ের দিন ঠিক হবে। আমি ভোট দেওয়ার অপেক্ষায় ছিলাম। আমি বিয়ের থেকেও ভোটকে বেশি গুরুত্ব দিয়েছি। আমার হবু স্ত্রীকেও ভোট দিতে বলেছি। সেও ভোট দিয়েই বিয়েতে অংশ নেবে।

বিশ্বের অনেক দেশে যখন ভোটের প্রতি ভোটারদের আগ্রহ কমছে তখন এই ভোট পাগল বরকে ব্যতিক্রমই বলতে হচ্ছে।









Leave a reply