কুষ্টিয়ায় ভুল প্রশ্নপত্রে পরীক্ষা গ্রহণের অভিযোগ

|

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি

কুষ্টিয়া সরকারি বালিকা বিদ্যালয় কেন্দ্রে প্রথম দিনে অনুষ্ঠিত বাংলা প্রথম পত্র পরীক্ষায় ভুল প্রশ্নে পরীক্ষা গ্রহণের ঘটনা ঘটেছে । কেন্দ্র সচিব ও কুষ্টিয়া সরকারি বালিকা বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মোজাম্মেল হকের দাবি বোর্ড র্থেকে সরবরাহকৃত বাংলা প্রথম পত্র নৈর্ব্যক্তিক প্রশ্নের একটি প্যাকেটে ভুলক্রমে ২০১৮ সালের প্রশ্নপত্র সরবরাহ করা হয়েছে।

আমরা বিষয়টি প্রথমে বুঝতে না পারলেও পরীক্ষা শেষে খাতা যাচাই-বাছাইকালে ভুলটি ধরা পড়ে। কেন্দ্র সচিবের দাবি একটি খামে ২০টি প্রশ্নপত্র সরবরাহ করা হয়েছিল সেখানে ২০১৮ সালে অনুষ্ঠিত পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ছিল। তিনি দাবি করেন ইতিমধ্যে যারা ভুল প্রশ্নে পরীক্ষা দিয়েছে তাদের পরীক্ষা পুনরায় নেওয়া হয়েছে ।

তবে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে ১৮ জন পরীক্ষার্থী এই ভুল প্রশ্নপত্রে পরীক্ষা দিয়েছে। তাদের মধ্যে ১২ জন সিরাজুল হক মুসলিম মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী এবং ছয়জন কুষ্টিয়া জেলা স্কুলের শিক্ষার্থী। তবে এখন পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের নাম পরিচয় জানা সম্ভব হয়নি। অভিযোগ উঠেছে, ভুল প্রশ্নে পরীক্ষা গ্রহনের পর বিষয়টি ধামাচাপা দিতে তোড়জোড় শুরু করে স্কুল কতৃপক্ষ।

কুষ্টিয়া সরকারী বালিকা বিদ্যালয় কেন্দ্রে এবার ১২০০ শিক্ষার্থী অংশগ্রহন করছে। ভুলপ্রশ্নে পরীক্ষা গ্রহনের ঘটনায় এই কেন্দ্রে এস.এস.সি পরীক্ষায় অংশগ্রহনকারী পরীক্ষার্থী ও অভিভাবকরা উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছেন।









Leave a reply