সংগঠন গড়ছেন সাবেক সচিবরা

|

সরকারের সাবেক সচিবরা ওয়েলফেয়ার সংগঠনের মাধ্যমে নিজেদের একত্রিত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। যার প্রাথমিক প্রস্তুতিপর্ব ইতিমধ্যে শুরু হয়েছে। সোমবার রাজধানীতে এক চা-চক্র বৈঠকের মাধ্যমে আহ্বায়ক কমিটি গঠন করা হয়েছে।

সোমবার বিকালে শিল্পকলা একডেমির এক সভাকক্ষে সরকারের প্রায় ৪২ জন সচিব একত্রিত হন। এতে সভাপতিত্ব করেন ১৯৭৩ ব্যাচের সাবেক সচিব শৈলেন্দ্রনাথ মজুমদার। সভায় আলোচনা শেষে ১৯৭৭ ব্যাচের সাবেক সচিব মো. নজরুল ইসলামকে আহ্বায়ক করে ১৫ সদস্যের আহ্বায়ক কমিটি গঠন করা হয়। এছাড়া ৫ সদস্যের খসড়া গঠনতন্ত্র প্রণয়ন উপকমিটির প্রধান হয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর সাবেক মুখ্য সচিব আবুল কালাম আজাদ।

এর আগে সভায় উপস্থিত হওয়ার জন্য সাবেক সচিবদের চিঠি দেন দুর্নীতি দমন কমিশনের চেয়ারম্যান ও ১৯৮১ ব্যাচের সাবেক সিনিয়র সচিব ইকবাল মাহমুদ। চিঠিতে তিনি বলেন, ‘জীবনের এক বড় সময় আপনি দেশ ও জাতির সেবায় নিয়োজিত থেকেছেন। এ সেবা দেয়ার সময় অর্জন করেছেন বহুমাত্রিক অভিজ্ঞতা, গ্রহণ করেছেন দেশে-বিদেশে নানা প্রশিক্ষণ, প্রত্যক্ষ করেছেন জাতীয়-আন্তর্জাতিক বাঁকবদল। এছাড়া আপনার রয়েছে চমৎকার শিক্ষাগত যোগত্যার পটভূমি। এসবের মিথস্ক্রিয়ায় ধীরে ধীরে হয়েছেন ঋদ্ধ, পরিণত ও প্রাজ্ঞ। আপনার অর্জিত জ্ঞান, অভিজ্ঞতা ও প্রজ্ঞা দেশের নীতি প্রণয়ন, বাস্তবায়ন ও তার ফলাফলকে ত্বরান্বিত করতেও পারে। দেশ ও জাতি এগিয়ে যেতে পারে সবার ইতিবাচক সম্মিলিত প্রয়াসের মধ্য দিয়ে।’

সূত্র জানায়, সাবেক সচিবদের এ সভায় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ইসমাইল হোসেন, প্রধানমন্ত্রীর সাবেক মুখ্য সচিব ১৯৭৯ ব্যাচের মো. আবদুল করিম, ১৯৮১ ব্যাচের এএসএম রশিদুল হাই, কাজী আমিনুল ইসলাম, দুর্নীতি দমন কমিশনের চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ, কাজী আতাহারুল ইসলাম, সদ্যবিদায়ী এনবিআর চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া, ১৯৮২ ব্যাচের মিজানুর রহমান, মাহবুব হাসান, ড. খোন্দকার শওকত হোসেন, সেলিনা আফরোজা, মিকাইল শিপার, গোলাম রব্বানী, মঈনুদ্দীন আবদুল্লাহ, নজরুল ইসলাম খান, খন্দকার ইফতেখার আহমেদ, এমএ কাদের সরকার, ১৯৮৪ ব্যাচের ইব্রাহীম হোসেন খান, সোহরাব হোসেন, নাজিমউদ্দিন চৌধুরী, ইশতিয়াক আহমেদ, আবদুল হান্নান, শ্যামসুন্দর সিকদার প্রমুখ।









Leave a reply