নিজের কবর দেখে বিস্মিত বৃদ্ধের দাবি, ‘আমি বেঁচে আছি’

|

মৃত্যুর আগেই আবিস্কার করলেন তার স্মৃতি ফলক যুক্ত কবর। এরপর বিস্মিত বৃদ্ধ ঘোষণা দিয়ে দাবি করলেন, আমি বেঁচে আছি। এমন বিচিত্র ঘটনা ঘটেছে স্কটল্যান্ডের ফোরফার। ৭৫ বছর বয়সী এই বৃদ্ধের নাম অ্যালান হাত্তেল।

হাত্তেল জানান, গত তিন চার মাস ধরে কোনো আত্মীয় স্বজন, বন্ধু বান্ধব তার কোনো ধরনের খবর নেয়নি। এতে তিনি কিছুটা অবাক হন। পরে খোঁজ নিয়ে জানেন স্কটল্যান্ডের আংগুস শহরের একটি কবরস্থানে তার নামে স্মৃতি ফলক। এতে তিনি হতবিহ্বল হয়ে পড়েন। পাশাপাশি, এই বুঝতে পারেন স্বজনরা সকলে মৃত ভেবেই তাকে ফোন দেয়া কিংবা খোঁজ খবর নেয়া বন্ধ করেছেন। অ্যালানের বিশ্বাস তার সাবেক স্ত্রী এমন কাজ করেছেন।

যুক্তরাজ্যভিত্তিক দ্যা কুরিয়ারের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, অ্যালান পেশায় ছিলেন একজন রাজমিস্ত্রী। বিবাহবিচ্ছেদের পর লম্বা সময় ধরে তিনি একাই থাকছেন। তবে ফোনে তার খোঁজ খবর নিতো আত্মীয় পরিজন। তিনি চার মাস কোন আত্মীয়ের ফোন না পেয়ে উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েন। ভাবতে থাকেন ঘটনা কী? পরে জানতে পারেন স্কটল্যান্ডের আংগুস শহরের একটি কবরস্থানে তার নামে স্মৃতি ফলক রয়েছে। সেখানে গিয়ে সেই কবর থেকে তার নাম সরান।

অ্যালান জানান, ২৬ বছর ধরে আমি আমার স্ত্রী থেকে আলাদা থাকছি কিন্তু আমাদের মধ্যে কোন শত্রুতা ছিল না। আমর স্ত্রী আমার চায় আমার পাশে সমাধিস্থ হতে। এজন্যই সে হয়তো কবরের জায়গা নির্দিষ্ট করে স্মৃতি ফলক লাগিয়ে রেখেছে। যদিও আমি তাকে কখনো বলিনি যে আমাদের কবর একসাথে হবে।

এমন বিচিত্র ঘটনার কোনো ধরনের প্রকাশ্য ব্যাখ্যা দেয়নি আংগুস কবরস্থান কর্তৃপক্ষ। জানায়নি কে কিনেছে কবরের জমি, কেই বা বসিয়েছে নাম ফলক!









Leave a reply