গোসলে গিয়ে দেখলেন বাথটাবে শুয়ে প্রকাণ্ড এক সাপ

|

প্রতিদিনের মতোই তিনি বাথটাবে গোসল সারতে গিয়েছিলেন। কিন্তু কে জানত যে তার জন্য এক ভয়াবহ আতঙ্ক অপেক্ষা করছে। বাথরুমে ঢুকেই দেখেন, সেখানে শুয়ে আছে ইয়া মস্তবড় এক সাপ।

আট ফুট দীর্ঘ এই সাপটি রয়েছে ঠিক তার বাথরুমের বাথটাবের গা ঘেঁষে। যেন মনে হচ্ছে, ওই নারীকে সে বলছে– এসো, আজ আমরা একসঙ্গে বাথটাবের পানিতে গোসল করি!-খবর এনডিটিভির

ওই নারীর তখন ছেড়ে দে মা কেঁদে বাঁচি অবস্থা। পরে পুলিশে খবর দেন তিনি। বাস্তব ঘটনা দেখে তাদের চক্ষুও চড়কগাছ।

পুলিশ দেখল যে বাথরুমে শুয়ে থাকা সাপটি বিশ্বের অন্যতম বৃহত্তর সাপ। এটির নাম বোয়া কনস্ট্রিকটর।

সেই সাপটির ছবি নিজেদের ফেসবুক পোস্টে দিয়েছে মারসেইসাইড পুলিশ। নিজেদের শিকারকে বেশ তারিয়ে তারিয়ে উপভোগের মাধ্যমে গিলে নিতে পছন্দ করে এই বিশেষ প্রজাতির সাপটি।

ব্রিটেনের বার্কেনহেড শহরে নিজের বাড়ির বাথরুমে ওই ভয়ঙ্কর সাপকে আবিষ্কার করেন ওই নারী। কিন্তু ওই বিশালাকায় সাপটি যে কোথা থেকে আর কীভাবে ওই বাড়ির ভেতরে ঢুকে পড়ল তা অনুমান করতে পারেননি কেউই। বাথরুমের মধ্যে বাথটবের গা ঘেঁষে চুপচাপ শুয়েছিল সেটি।

পুলিশের দেয়া সাপের ছবির ওই পোস্টটি দেখে ভয়ে কেঁপে উঠেছেন নেটিজেনরা। মন্তব্যে এক ব্যক্তি লিখেছেন– যদি এ রকম একটা সাপ কখনও আমার বাথরুমে থাকে; তবে আমি গলা ছেড়ে কাঁদব।

আরেকজন লিখেছেন– রাতে ঠিক এই সাপটা নিয়ে দুঃস্বপ্ন দেখব আমি।

সাপটিকে শেষ পর্যন্ত অনেক কসরৎ করে এক পুলিশ কনস্টেবল পাকড়াও করেন। তিনি ঠাণ্ডা মাথায় সেটির কাছে যান। পরে নিজের স্নায়ু ঠিক রেখে সাপটি ধরে একটি পাত্রে ঢুকিয়ে দেন।









Leave a reply