ফরেনসিক পরীক্ষায় ঢাবি শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের আলামত মিলেছে

|

ডাক্তারি পরীক্ষায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নারী শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের আলামত পাওয়া গেছে। ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীর শরীরে আঘাতে চিহ্ন রয়েছে বলেও জানিয়েছেন ঢাকা মেডিকেলের ফরেনসিক বিভাগের প্রধান ডা. সোহেল মাহমুদ।

সোমবার দুপুরে গণমাধ্যমে তিনি বলেন, ধর্ষণের আলামত পাওয়া গেছে। পরীক্ষাকালে ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীর শরীরে আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। গলায় আঙ্গুলের চিহ্ন পাওয়া গেসে। এ থেকে ধারণা করা হচ্ছে তার গলা টিপে ধরা হয়েছিল। সারা পায়ে খোঁচা লাগার দাগ রয়েছে। ঝোপের মধ্যে ধর্ষণের কারণে এ দাগ হতে পারে। তবে, ধর্ষক একজন নাকি একাধিক ব্যক্তি সেটি আরো পরীক্ষার পর জানা যাবে।

আর ঢাকা মেডিকেলে পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল নাসির উদ্দিন বলেছেন, ওই শিক্ষার্থীর মানসিকভাবে বিপর্যস্ত ছিলেন। তার অবস্থা এখন কিছুটা ভালো। আরো খানিকটা সময় গেলে মানসিক অবস্থা আরেকটু ভাল হবে।

রবিবার সন্ধ্যায় বিশ্ববিদ্যালয়ের বাসে করে ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী বান্ধবীর বাসায় যাচ্ছিলেন। কুর্মিটোলা বাসস্টেশনে নামার পর তাকে অজ্ঞাত এক ব্যক্তি তাকে পেছন থেকে আক্রমণ করে। অজ্ঞান করে নির্জন স্থানে নিয়ে ধর্ষণ করে। রাত ১০টার দিকে জ্ঞান ফেরার পর তিনি বান্ধবীর বাসায় যান। সেখান থেকে বান্ধবীসহ অন্য সহপাঠীরা তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান।


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply