নাটোরে কলেজছাত্র হত্যার ঘটনায় আটক ৭

|

স্টাফ রিপোর্টার,নাটোর
নাটোরে কলেজছাত্র হত্যার ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৭ জনকে আটক করেছে পুলিশ। সোমবার সকালে তাদের আটক করা হয়। এর আগে রবিবার রাত ৯টার দিকে সদর উপজেলার আওরাইল নবীন কৃষ্ণপুর গ্রাম থেকে কলেজছাত্র কামরুল ইসলাম জাহিদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

নিহত কামরুল ঐ গ্রামের আফাজ উদ্দিনের ছেলে। সে শহরের চকরামপুর এলাকার রাজশাহী সায়েন্স এ্যান্ড টেকনোলজি বিবিএ শেষ বর্ষের শিক্ষার্থী ছিল।

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) ফরিদুল ইসলাম ও নিহতের পরিবারের সদস্যরা জানান, শনিবার রাত ৯ টার দিকে কামরুল ইসলামের মোবাইল ফোনে কে বা কারা কল করে। এরপর সে বাড়ি থেকে বের হয়ে রাতে আর ফিরে আসেনি। রাতে তার মোবাইল ফোনও বন্ধ পাওয়া যায়। পরিবারের সদস্যরা রাতে তাকে বিভিন্ন স্থানসহ আশেপাশের নিকট আত্মীয়দের বাড়িতে খোঁজাখুজি করেও কোন সন্ধান পায়নি। পরদিন রাতে স্থানীয়রা নবীন কৃষ্ণপুর গ্রামের বাঁশ ঝাড়ের জঙ্গলে একটি মরদেহ পরে থাকতে দেখে পুলিশকে খবর দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে।

নিহতের মোবাইল ফোনের কল লিস্ট চেক করে কাদের সাথে কথা বলে সে বাড়ি থেকে বের হয়েছে সেই বিষয়ে খোঁজ করা হচ্ছে। সুরতহাল প্রতিবেদনে নিহতের শরীরে আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে এবং তার একটি চোখ উপড়ে ফেলা হয়েছে। প্রাথমিকভাবে ধারনা করা হচ্ছে এটা একটা হত্যাকাণ্ড।


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply