ফরিদপুরে ছাত্রলীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষ, পুলিশসহ আহত ১০

|

ফরিদপুর প্রতিনিধি:

ফরিদপুরের সদরপুরে ছাত্রলীগের ৭২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী অনুষ্ঠানে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে চার পুলিশসহ আহত হয়েছে অন্তত দশ জন।

শনিবার বেলা ১১টার সময় উপজেলা সদরের আওয়ামী লীগের অফিসে সামনে এ ঘটনা ঘটে।

ফরিদপুরের অতিরিক্তি পুলিশ সুপার জামাল পাশা সাংবাদিকদের ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, সংঘর্ষ নিয়ন্ত্রণে আনতে গিয়ে চার পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। এরা হলো, এস আই ফরহাদ, এসআই কামরুজ্জামান, এএসআই রবিউল ইলাম, কনেস্টবল জাহাঙ্গীর হোসেন।

এসময় দুই পক্ষের অন্তত ১০ জন আহত হয়েছে বলেও জানান তিনি। তিনি জানান, বর্তমানে পরিস্থিতি পুলিশের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।

উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মশিউর রহমান মীম অভিযোগ করে বলেন, ফরিদপুর-৪ আসনে (স্বতন্ত্র) এমপি মুজিবুর রহমান নিক্সন চৌধুরীর সমর্থিত বহিস্কৃত উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক উপজেলা চেয়ারম্যান কাজী শফিকুর রহমানের নেতৃত্বে ২৫/৩০ জন সন্ত্রাসীরা অতর্কিত ভাবে হামলা চালায়। এসময় উভয় পক্ষের ৬/৭ জন আহত হয়।

এমপি নিক্সন চৌধুরীর সমর্থক উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কাজী শফিকুর রহমান জানান, গত ৩ দিন আগে এইখানে আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম মেম্বার কাজী জাফরউল্ল্যাহ জনসভা করে প্রশাসন, পুলিশ, স্থানীয় এমপি নিক্সন চৌধুরী ও উপজেলা আওয়ামী লীগকে নিয়ে বিভিন্ন উস্কানিমুলক বক্তব্য প্রদান করে। ধারণা করছি সেই জের ধরেই তার সমর্থক ছাত্রলীগের সদস্যরা প্রশাসনিক এলাকায় হামলা চালানোর চেষ্টা করলে আমাদের ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা তাদের বাধা দেয়। পরে সেখানে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে।









Leave a reply