আলোচনায় অ্যারাবিয়ান পোশাক; শিক্ষার্থীদের পোশাকের বিষয়ে পরামর্শ নিতে বললো কুয়েট

|

আরব দেশের পোশাক পরে ক্লাসে গিয়ে আলোচনায় উঠে এসেছেন খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (কুয়েট) ছাত্ররা। এদিকে, এই ঘটনার প্রেক্ষিতে বিজ্ঞপ্তি জারি করে শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন উপলক্ষ্যে আয়োজিত র‍্যালি-শোভাযাত্রার পোশাক বিষয়ে ছাত্র কল্যাণ দপ্তর, প্রভোস্ট কিংবা বিভাগীয় প্রধানদের মতামত নিতে বলেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

বুধবার কুয়েটের রেজিস্ট্রার জি.এম শহিদুল আলম স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়েছে বিভিন্ন র‍্যালিতে দলবদ্ধভাবে পোশাক পরে শিক্ষার্থীরা অংশগ্রহণ করেছেন যা দেশের সংস্কৃতির পরিপন্থি বিধায় বিশ্ববিদ্যালয়কে বিব্রতকর পরিস্থিতিতে ফেলছে। এই বিষয়ে সংশ্লিষ্ট সকলের সহযোগিতা কামনা করা হয়েছে।

সম্প্রতি, শেষ ক্লাসকে স্মরণীয় করে রাখতে কুয়েটের কম্পিউটার প্রকৌশল বিভাগের ১৫-তম ব্যাচের ছাত্ররা শেষ ক্লাসে ভিন্নধর্মী কিছু করার চিন্তা করেন। এর অংশ হিসেবে ছাত্ররা আরব দেশের মতো পোশাক পরে আর ছাত্রীরা শাড়ি পরে ক্লাসে হাজির হন। অ্যারাবিয়ান পোশাক পরে পরা একটি ছবি সামাজিকমাধ্যমেও তারা পোস্ট করেন। এরপরই ছবিটি ভাইরাল হয়ে যায়। এ নিয়ে ফেসবুকে অনেকেই নানা মন্তব্য করেছেন।

ভিন্নধর্মী আয়োজনের কারণে অনেকেই তাদের প্রশংসা যেমন করেছেন, তেমনি কেউ কেউ সমালোচনা করে লিখেছেন, এই পোশাকের সঙ্গে আমাদের সম্পর্ক কোথায়? কেউ কেউ তাদের মনস্তত্ত্ব নিয়ে প্রশ্ন তুললেও অনেকেই আবার পোশাক বিতর্কে না গিয়ে তরুণদের জন্য শুভ কামনা জানিয়েছেন।


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply