গলাচিপায় অপহরণের পাঁচ ঘণ্টা পর কিশোর উদ্ধার, আটক ৩

|

পটুয়াখালী প্রতি‌নি‌ধিঃ

পটুয়াখালীর গলাচিপায় অপহরণের পাঁচ ঘণ্টা পর অপহৃত কিশোরকে উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ। মঙ্গলবার রাত আটটার দিকে গলাচিপার মহিলা কলেজ রোড এলাকার গলাচিপা-বোয়ালিয়া রাস্তা থেকে মইনকে পুলিশ পরিচয় দিয়ে তুলে নিয়ে যায় গলাচিপা পৌর এলাকার সংঘবদ্ধ ছয় সদস্যের কিশোর বখাটে। প‌রে অভিযোগ পাওয়ার পর গলাচিপা থানা পুলিশ পাঁচ ঘণ্টা অভিযান চালিয়ে পৌরএলাকার হেলিপ্যাডের কাছে কাঁচা রাস্তা থেকে মইনকে উদ্ধার করে।

ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে গলাচিপা পৌরসভার আনন্দ পাড়ার অপি, আরামবাগ এলাকার শান্ত ও দফাদার বাড়ির সাইমুনকে আটক করেছে পুলিশ।

অপহৃত কিশোর মইনের মা রিনা বেগম ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার রাত
আটটার দিকে গলাচিপার মহিলা কলেজ রোড এলাকা থেকে অপহরণকারীরা মইনকে
অপহরণ করে নিয়ে যায়। এর কিছু পরেই মইনের মা রিনা বেগমের কাছে পুলিশ
পরিচয় দিয়ে ২০ হাজার টাকা মুক্তিপন দাবি করে। এ ঘটনা মইনের মা গলাচিপা থানায় অবহিত করলে মঙ্গলবার রাত ১০টায় গলাচিপা থানার অফিসার ইনচার্জ ও
এএসআই দিবাকরসহ পুলিশের একটি দল অভিযান চালিয়ে রাত তিনটার দিকে মইনকে হেলিপ্যাড এলাকার ফাকা রাস্তায় ফেলে রেখে অপহরণকারীরা পালিয়ে যায়। এর আগে অপহরণকারীরা মইনকে নিয়ে বিভিন্ন ঝোপ ঝাড়ে লুকিয়ে ছিল। এসময় ২০
হাজার টাকা দিতে অপরাগতা প্রকাশ করলে বিভিন্ন হুমকি দিয়ে অন্তত পাঁচ হাজার টাকা নিয়ে দেখা করতে বলে।

এ প্রসঙ্গে গলাচিপা থানার অফিসার ইনচার্জ আখতার মোর্শেদ বলেন, ‘ভিকটিম মইনকে উদ্ধার করেছি। বুধবার সকালে অভিযান চালিয়ে অপহরণের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে তিনজনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করছি। এ ঘটনায় এখনো কোন মামলা হয়নি।’


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply