শহীদ মিনারে জুতা পায়ে ছাত্রদল নেতাকর্মী, নামতে বলায় পুলিশের ওপর হামলা

|

বগুড়া ব্যুরো
বগুড়ায় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর আয়োজনে শহীদ মিনারে জুতা পায়ে অবস্থান করা ছাত্রদল নেতাকর্মীদের নামতে বলায় হামলার শিকার হয়েছেন জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপারসহ ৫ পুলিশ সদস্য। বুধবার দুপুরে শহরের শহীদ খোকন পৌর শিশু উদ্যানে এই ঘটনা ঘটে। আহত পুলিশ সদস্যদের মধ্যে মাথায় গুরুতর আঘাতপ্রাপ্ত কন্সটেবল পারভেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সনাতন চক্রবর্তী জানান, প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষ্যে শহীদ খোকন পার্কে সমাবেশের আয়োজন করে জেলা ছাত্রদল। সমাবেশ শুরুর আগে সংগঠনটির শতাধিক নেতাকর্মী পার্কের ভেতরে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের বেদীতে জুতা পায়ে উঠে অবস্থান করছিলো। পার্কের বাইরে থেকে বিষয়টি নজরে পড়ায় তিনি ভেতরে গিয়ে ছাত্রদল নেতাকর্মীদের জুতা পায়ে শহীদ মিনারে অবস্থান না করার অনুরোধ জানান। এসময় কয়েকজন বেদী থেকে নেমে গেলেও বাকিরা চড়াও হন সনাতন চক্রবর্তীসহ তার সঙ্গে থাকা পুলিশ সদস্যদের ওপর। ছাত্রদল নেতাকর্মীরা তাদের মারপিট করতে থাকলে অতিরিক্ত পুলিশ সদস্যরা এসে তাদের উদ্ধার করেন।

মোহাম্মদ আলী হাসপাতালের আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার ডাক্তার শফিক আমিন কাজল জানান, ঘটনার পর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সনাতন চক্রবর্তী, সহকারী উপ-পরিদর্শক আশরাফুল ইসলাম এবং কন্সটেবল পারভেজ, মামুন ও সিফাতকে হাসপাতালে আনেন তাদের সহকর্মীরা। অন্য চারজন প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে গেলেও মাথায় গুরুতর আঘাতপ্রাপ্ত কন্সটেবল পারভেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বলেও জানান ডাক্তার কাজল।

সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এসএম বদিউজ্জামান যমুনা নিউজকে জানান, ঘটনার পর শহরের বিভিন্ন এলাকায় তল্লাশি চালিয়ে ছাত্রদলের ১৫ নেতাকর্মীকে আটক করা হয়েছে।


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply