এবার ক্রিকইনফোর দশকসেরা ওয়ানডে একাদশে সাকিব

|

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ হয়েছেন তবু একের পর এক সেরা একাদশে ঠাঁই পাচ্ছেন সাকিব আল হাসান। এবার ক্রীড়া বিষয়ক জনপ্রিয় ওয়েবসাইট ইএসপিএন ক্রিকইনফোর দশকসেরা ওয়ানডে একাদশে স্থান পেয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় বিজ্ঞাপন সাকিব। এই একাদশে ৬টি দেশের ক্রিকেটারদের রাখা হয়েছে। ভারত ও দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে বর্তমান সময়ের ৩ জন ক্রিকেটারের স্থান হয়েছে।

ক্রিকইনফোর ওয়ানডে একাদশে সাকিবকে ৭ নম্বর ব্যাটিং পজিশনে রাখা হয়েছে। দশকের সেরা একাদশে উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান হিসেবে বাছাই করা হয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকার হাশিম আমলা ও ভারতের রোহিত শর্মাকে। ভারতের অধিনায়ক বিরাট কোহলিকে রাখা হচ্ছে তিন নম্বরে। ৪ নম্বরে নেমে মিডল অর্ডারের হাল ধরবেন দক্ষিণ আফ্রিকার এবি ডি ভিলিয়ার্স। ৫ নম্বরে রাখা হয়েছে রস টেলরকে, ৬ নম্বরে নামবেন মাহেন্দ্র সিং ধোনি। আর বোলার হিসেবে বেছে নেয়া হয়েছে- ট্রেন্ট বোল্ট, মিচেল স্টার্ক, লাসিথ মালিঙ্গা ও ইমরান তাহিরকে।

এর আগে, ক্রিকেটের বাইবেলখ্যাত উইজডেন অ্যালমানাকের দশকসেরা ওয়ানডে একাদশে জায়গা হয়েছে সাকিব আল হাসানের। জায়গা পেয়েছেন ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার দশকসেরা ওয়ানডে একাদশেও।

গত ১০ বছর ধরে আন্তর্জাতিক ও ফ্র্যাঞ্চাইজি ভিত্তিক ক্রিকেটে দাপটের সঙ্গে খেলে যাচ্ছেন সাকিব। ব্যাট হাতে দারুণ ধারাবাহিকতার পাশাপাশি বল হাতেও ছিলেন সাবলীল। এই সময়ে ৩৮.৮৭ গড়ে তিনি রান করেছেন ৪ হাজার ২৭৬। বল হাতে ৩০.১৫ গড়ে নিয়েছেন ১৭৭ উইকেট! তাই তার এই একাদশে জায়গা হয়েছে অলরাউন্ডার হিসেবেই।

ইএসপিএন’র দশকসেরা একাদশে বিশেষজ্ঞ স্পিনার হিসেবে থাকা ইমরান তাহিরের চেয়েও সাকিবের উইকেট সংখ্যা বেশি। তাহির নিয়েছেন ১৭৩টি উইকেট। সাকিবের উইকেট তার চেয়ে ৪টি বেশি।


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply