আমার কী তাহলে দিন শেষ: অমিতাভ বচ্চন

|

ভারতের চলচ্চিত্র বিষয়ক সর্বোচ্চ স্বীকৃতি দাদাসাহেব ফালকে সম্মানে সিক্ত হলেন অমিতাভ বচ্চন। শারীরিক অসুস্থতার কারণে জাতীয় পুরস্কার মঞ্চে অনুপস্থিত থাকায় রোববার রাষ্ট্রপতি ভবনে ৫০-তম এই বিশেষ সম্মান অমিতাভের হাতে তুলে দেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ।

জাতীয় পুরস্কারের মঞ্চেই ঘোষণা হয়েছিল, ২৯ ডিসেম্বর রাষ্ট্রপতি ভবনে আলাদা করে সম্মান জানানো হবে অমিতাভ বচ্চনকে। রোববার প্রবীণ অভিনেতার সঙ্গে ছিলেন তার স্ত্রী জয়া বচ্চন, ছেলে অভিষেক বচ্চন। দীর্ঘ ৪৪ বছর ধরে অমিতাভ ভারতীয় সিনেমায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখে চলেছেন।

সম্মানিত হওয়ার পর অমিতাভ জানান, নাম ঘোষণার পর থেকেই আমার মনে একটাই প্রশ্ন জেগেছে। আমার কী তাহলে দিন শেষ! অনেক কাজ করে ফেলেছি। এবার ঘরে বসে বিশ্রামের সময় এসে গেছে? এই সম্মানের মানে কি তাই-ই? কিন্তু এখনও যে আমার সামান্য কিছু কাজ বাকি।

চলতি বছরের সেপ্টেম্বরে ভারতের তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী প্রকাশ জাভরেকড় দাদাসাহেব ফালকের সম্মানের জন্য অমিতাভ বচ্চনের নাম ঘোষণা করেন। তার দুই দশকের কাজকে সম্মান জানাতেই এই বিশেষ পুরস্কার তাকে দেওয়া হবে। ভারত ধন্য তার মতো প্রতিভাকে পেয়ে।

৬৬-তম জাতীয় পুরস্কার মঞ্চে তার অনুপস্থিতির কথা টুইট করে আগেই জানিয়েছিলেন বিগ বি। জ্বরে কাবু হয়ে পড়ায় চিকিৎসকের পরামর্শ মেনে তিনি উপস্থিত থাকতে পারেননি অনুষ্ঠানে। ওই দিন বাকি পুরস্কারপ্রাপকদের হাতে সম্মান তুলে দেন উপরাষ্ট্রপতি বেঙ্কাইয়া নাইডু।

এর আগে ৪ বার জাতীয় পুরস্কারে সম্মানিত হয়েছেন অমিতাভ বচ্চন। ২০১৫ সালে পিকু ছবির জন্য সবশেষ সম্মানিত হন তিনি।


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply