বৃদ্ধাশ্রমে প্রেম, অতঃপর বিয়ে

|

একজনের নেই ছেলে মেয়ে তাই স্বামী মারা যাওয়ায় বৃদ্ধাশ্রমে থাকেন। অপরজন ছেলে মেয়েরা তাড়িয়ে দেয়ায় থাকেন বৃদ্ধাশ্রমে। অনেক দিন একসাথে থাকতে থাকতে দুজনের মধ্যে প্রেম আসে। তারপর দ্বিতীয়বার বিয়ে করলেন এই ষাট ঊর্ধ্ব নারী পুরুষ। হলেন একে অপরের শেষ জীবনের পরম বন্ধু। এ ঘটনা ভারতের কেরালার ত্রিশূরের রামবর্মাপুরমের একটি বৃদ্ধাশ্রমের।

জানা যায়, ৬৫ বছরের লক্ষ্মী আম্মাল এবং ৬৭ বছরের কোচানিয়ান মেনন একই বৃদ্ধাশ্রমে থাকতেন। এরপর দুজনের মধ্যে ক্রমশ নিঃসঙ্গতা তাড়িয়ে প্রথমে বন্ধুত্ব তারপর প্রেম। নতুন করে ঘর বাঁধার স্বপ্ন দেখা এই বৃদ্ধ–বৃদ্ধা বৃদ্ধাশ্রমের অন্য আবাসিকদের জানালে তাঁরা বিষয়টা কর্তৃপক্ষকে অবগত করে। এরপর বৃদ্ধাশ্রমের কর্তৃপক্ষ, কর্মী এবং অন্য আবাসিকদের উদ্যোগে লক্ষ্মী–কোচানিয়ানের বিয়ের আয়োজন করা হয় শনিবার। এমনকি বিয়েতে রাজ্যের কৃষিমন্ত্রী ভিএস শিবকুমার উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে লাল বেনারসী পরে কনের সিংহাসনে বসে প্রেমিকের গালে ভালবাসার চিহ্ন এঁকে দেন লক্ষ্মীদেবী। আর সেই ছবিই এখন সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল।


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply