পর্দায় ফিরছেন মিমি, সঙ্গে ‘ড্রাকুলা স্যার’

|

সাংসদ হলেও অভিনয় ছাড়বেন না, বলেছিলেন নুসরত জাহান। তিনি কথা রেখেছেন। বড়পর্দায় ফিরছেন পাভেলের আগামী ছবি ‘অসুর’ দিয়ে। বাকি আরেক সাংসদ মিমি চক্রবর্তী। তিনিও কাজে করে দেখাতে চলেছেন। অর্থাৎ, তিনিও ফিরছেন রুপোলি পর্দায়। দেবালয় ভট্টাচার্যের আগামী ছবি ‘Dracula Sir’-এর মাধ্যমে।

ছবিতে তাঁর সহ অভিনেতা অনির্বাণ ভট্টাচার্য। প্রযোজনায় শ্রী ভেঙ্কটেশ ফিল্মস। প্রসঙ্গত, মিমিকে শেষ অভিনয় করতে দেখা গেছিল এই প্রযোজনা সংস্থারই Mon Jaane Na-তে। তারপর রাজনীতির ময়দানে তাঁর আত্মপ্রকাশ। এবং আক্ষরিক অর্থেই তৃণমূলীয় স্তর থেকে কাজ শুরু করা, কাজ শেখা। সংসদ ভবনে হাজিরা দেওয়া। মাঝে নিজস্ব ভিডিও অ্যালবাম এবং ইউ টিউব চ্যানেল লঞ্চ করা। আর সব সামলে ফের ক্যামেরা-সাউন্ড-অ্যাকশনের দুনিয়ায়।

ব্রাম স্ট্রোকারের কাউন্ট ড্রাকুলার গল্প সবাই জানেন। কিন্তু বাংলাতেও যে ড্রাকুলার সংস্করণ থাকতে পারেন, সেটা বোধহয় আন্দাজ করতে পারেননি কেউই। সেই গল্প বলতে চলেছেন দেবালয়। এই গল্পের নায়ক এক প্রাইমারি স্কুলের শিক্ষক। তাঁরও দুজোড়া শ্বদন্ত বা ক্যানাইন আছে যাঁর জন্য তাঁর ডাক নাম Dracula Sir। তিনিও রক্তচোষা ভ্যাম্পায়ারে পরিণত হবেন। কিন্তু কীভাবে? পেছনে রয়েছে অন্য গল্প। যা জানতে অপেক্ষা করতে হবে ছবি রিলিজ পর্যন্ত।

দেবালয়ের পর্থম ছবি ব্যোমকেশ গোত্র-এর সাফল্য় বুঝিয়ে দিয়েছে, তিনি জাত পরিচালক। চিরনবীন ব্যোমকেশের প্রবীণ রূপের সাক্ষী তাঁর এই ছবি। এবারে তাঁর নয়া চ্যালেঞ্জ, দুর্গহীন বাঙালি ড্রাকুলার গল্প বলা। এখানে প্রধান ভূমিকায় অভিনয় করছেন অনির্বাণ। তাঁর নায়িকা মিমি। পরিচালকের কথায়, তিনি মিমির ভক্ত কগানের ওপারে ধারাবাহিকে পুপের চরিত্রে অভিনয় দেখে। মানজারি যেন সেই রূপকে আরও ভারসাম্য দিয়েছে। তবে পুপের থেকেও শান্ত। কিছুটা যেন বিষাদগ্রস্ত। দেবালয়ের দাবি, মিমিকে এই ধরনের চরিত্রে আগে কোনোদিন দেখা যায়নি। ছবির শুট শুরু হবে কিছুদিনের মধ্যেই।


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply