নাটোরের গুরুদাসপুর থেকে তিন ছিনতাইকারী গ্রেফতার

|

স্টাফ রিপোর্টার:

নাটোরের বড়াইগ্রাম থেকে অটোবাইক চালক রুহুল আমীনকে কুপিয়ে অটোবাইক ছিনতাইয়ের ঘটনায় গুরুদাসপুর থেকে তিনজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার গুরুদাসপুর উপজেলার উদবাড়িয়া গ্রাম থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। এসময় অটোবাইকটি উদ্ধার ও ছিনতাইয়ের কাজে ব্যাবহৃত একটি মোটরসাইকলে জব্দ করা হয়েছে।

গ্রেফতারকৃতরা উদবাড়িয়া গ্রামের নয়ন আলী ও সাব্বির আহম্মেদ এবং তালবাড়িয়া গ্রামের হাবিবুল্লাহ হাসান। বুধবার দুপুরে নাটোরের পুলিশ সুপারের সম্মেলন কক্ষে প্রেসবিফ্রিংয়ে এসব তথ্য জানানো হয়। আহত অটো বাইক চালক গুরুদাসপুরের বাহাদুরপুর গ্রামের বাসিন্দা।

নাটোরের পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা জানান, গত ২৩ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় বড়াইগ্রামের বনপাড়া হাটিকুমরুল মহাসড়কের মানিকপুর আইড়মারী ব্রীজ হয়ে বাড়ি ফিরছিলেন অটো বাইক চালক রুহুল আমীন। পথে আইড়মারী ব্রীজের মাঝামাঝি এলাকায় তিনজন একটি মোটর সাইকেলে চড়ে এসে তার পথরোধ করে। এসময় ওই তিন ছিনতাইকারী অটো চালক রুহুল আমীনকে অটো থেকে নামিয়ে পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করে অটোবাইক নিয়ে পালিয়ে যায়। পরে আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে প্রথমে গুরুদাসপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও পরে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এঘটনায় রুহুল আমীনের স্ত্রী আফরোজা খাতুন থানায় অভিযোগ দায়ের করলে পুলিশ ঘটনার তদন্তে নামে। পরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গুরুদাসপুর উপজেলার উদবাড়িয়া গ্রামের আইনাল প্রামানিকের ছেলে নয়ন আলীর বাড়িতে অভিযান চালায় পুলিশ। অভিযানকালে নয়ন আলীর বাড়ি থেকে নয়ন আলীর সহযোগী হাবিবুল্লাহ হাসান ও সাব্বির আহম্মেদকে গ্রেফতার করা হয়। এসময় ছিনতাইকৃত অটোবাইকটি উদ্ধার ও ছিনতাইয়ের কাজে ব্যাবহৃত একটি মোটরসাইকেল জব্দ করা হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতারকৃতরা তাদের অপরাধের কথা স্বীকার করে।









Leave a reply