আন্দোলনে অংশ নেয়ায় জার্মান ছাত্রকে ভারত ছাড়ার নির্দেশ

|

নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন বাতিলের দাবিতে উত্তাল ভারত। দেশটির বিভিন্ন রাজ্যে চলছে প্রতিবাদ-বিক্ষোভ। নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে বিভিন্ন পোস্টার, প্ল্যাকার্ড প্রদর্শন করে বিক্ষোভ করছেন আন্দোলনকারীরা।

ছাত্র বিনিময় প্রথা অনুযায়ী জার্মানি থেকে আইআইটি মাদ্রাজে পড়তে এসেছিলেন জ্যাকব লিনডেনথাল। কিন্তু নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের বিরুদ্ধে প্রতিবাদে অংশ নেওয়ায় তাঁকে দেশ ছাড়ার নির্দেশ দেওয়া হয়। আইআইটি মাদ্রাজে এমএসসি ফিজিক্স নিয়ে পড়াশোনা করে ছাত্রটি।

জার্মানির ড্রেসডেনের বাসিন্দা জ্যাকোব লিনডেনথাল গত সপ্তাহে চেন্নাইয়ে নাগরিকত্ব বিলের বিরুদ্ধে প্রতিবাদে অংশ নেন। তার হাতে একটি পোস্টার দেখা যায়, যেখানে লেখা ‘১৯৩৩-৪৫ এ আমরাও এই অবস্থার মধ্যে দিয়ে গিয়েছি।’ স্পষ্টতই তিনি ইহুদিদের ওপর নাত্‍‌সি বাহিনীর অত্যাচারের কথাই নাম না করে উল্লেখ করেন। এর পরেই জ্যাকোবকে দেশ ছাড়ার নির্দেশ দেওয়া হয়। আরও একটি সেমিস্টার বাকি রয়েছে জ্যাকোবের। ২০২০ সালের মে মাসে তার দেশে ফেরার কথা।

জ্যাকোব জানিয়েছেন- লিখিত ভাবে নয়, মৌখিকভাবে তাকে ভারত থেকে চলে যাওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়। অভিবাসন দফতরের এক আধিকারিক জানিয়েছেন যে কোন রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডে কোন বিদেশি অংশ নিলে তা ভিসা আইনের বিরোধী। এই ধরনের আইন লঙ্ঘনে দেশে ফিরিয়ে দেওয়ার আইন রয়েছে।









Leave a reply