অমিত শাহ বিএনপি সম্পর্কে মিথ্যা তথ্য দিয়েছেন: ফখরুল

|

হিন্দুত্ববাদী রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার জন্যই বাংলাদেশ ও বিএনপির কাঁধে বন্দুক রেখে এ অঞ্চলের রাজনীতিকে অসুস্থতার দিকে ঠেলে দিয়েছে বিজেপি সরকার- এ অভিযোগ করে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ভারতে একতরফাভাবে নাগরিকত্ব আইন পাস এ উপমহাদেশের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির ওপর চরম আঘাত।

সম্প্রতি ভারতীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ বিএনপিকে জড়িয়ে অসত্য তথ্য দিয়েছেন বলেও অভিযোগ করেন ফখরুল।

সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন বাতিলের দাবিতে উত্তাল ভারত। চলছে বিক্ষোভ-প্রতিবাদ আর ধরপাকড়। বিষয়টি নিয়ে আনুষ্ঠানিক প্রতিক্রিয়া জানাতে গুলশানে চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে বিএনপির এই সংবাদ সম্মেলন।

দলটির মহাসচিব বলেন, হিন্দুত্ববাদী রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠিত করতেই এনআরসি ও নাগরিকত্ব আইন সংশোধন করেছে বিজিপি সরকার, যা নষ্ট করবে উপমহাদেশের শান্তি ও স্থিতিশীলতা।

বিএনপির দাবি, বিভিন্ন সীমান্ত দিয়ে বাংলাদেশে পুশ ইন চলছে। মুলত ভারতের উত্তর ও পূবাঞ্চলীয় রাজ্য আসামের ১৯ লাখেরও বেশি মানুষের নাম জাতীয় নাগরিকপঞ্জী বা এনআরসি থেকে বাদ দেয়ার কারণেই এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। অথচ বিষয়টিকে ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয় বলে সরকার পাস কাটিয়ে যাচ্ছে বলেও অভিযোগ করেন বিএনপি মহাসচিব।

বিএনপি সরকারের সময়ে বাংলাদেশে সংখ্যালঘু নির্যাতন হয়েছে- ভারতীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর এমন বক্তব্য অসত্য, বিভ্রান্তিমূলক বলে দাবি করে মির্জা ফখরুল অবিলম্বে এই বক্তব্য প্রত্যাহারের আহ্বান জানান।


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply