পাবনায় পুকুর থেকে নির্মাণ শ্রমিকের লাশ উদ্ধার

|

পাবনা প্রতিনিধি:

পাবনার চাটমোহর উপজেলার অমৃতকুন্ডা গ্রামের একটি পুকুর থেকে শুক্রবার সোহাগ হোসেন (১৮) নামে এক নির্মাণ শ্রমিকের ভাসমান লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

সোহাগ উপজেলার মূলগ্রাম ইউনিয়নের চকউথুলী গ্রামের শওকত আলীর ছেলে।

স্থানীয়রা জানান, সোহাগের মা-বাবার মধ্যে বিচ্ছেদের পর চকউথুলী গ্রামে নানার বাড়িতে থেকে নির্মাণ শ্রমিকের কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করতেন। গত ৪/৫ দিন ধরে তার কোনও খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না। শুক্রবার সকালে অমৃতকুন্ডা (রেল বাজার) সরকার বাড়ির পাশের একটি পুকুরে মৃতদেহ ভাসতে দেখে পুলিশে খবর দেয় স্থানীয়রা। পরে পুলিশ অর্ধগলিত ভাসমান লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাবনা জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

স্থানীয়দের ধারণা সোহাগকে শ্বাসরোধে হত্যা করে লাশ পুকুরে ফেলা হয়েছে। নিহত শ্রমিক সোহাগের পকেটে থাকা মানিব্যাগ থেকে তার পরিচয় শনাক্ত করে পুলিশ। এরপর তার পরিবারে খবর দেওয়া হলে নিহত শ্রমিকের মা স্বপ্না খাতুন ঘটনাস্থলে এসে তার ছেলের লাশ দেখে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন।

চাটমোহর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সেখ নাসীর উদ্দিন জানান, লাশের শরীরে আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি। বেশ কয়েকদিন পানিতে পড়ে থাকায় লাশটি ফুলে শরীরে পচন ধরেছে। এ ঘটনায় থানায় একটি অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা দায়ের করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পেলে মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে বলে তিনি জানান।









Leave a reply