উড়ন্ত বিমান থেকে লাশ পড়লো বাড়ির বাগানে: পরিচয় মিলেছে সেই যুবকের

|

লন্ডনের দক্ষিণে ক্ল্যাফাম এলাকার একজন বাসিন্দা বিকালে তার বাড়ির বাগানে রোদ পোহাচ্ছিলেন। বিকাল আনুমানিক পৌনে চারটার দিকে তিনি তার চোখের সামনে যা দেখলেন তা তার কল্পনারও অতীত ছিল।

তার মাত্র কয়েক গজ দুরে আকাশ থেকে ধপ করে একটি মৃতদেহ এসে পড়ে। রক্তে ভেসে যায় তার বাগানের একাংশ।

গত জুন মাসের ঘটনা এটি। লন্ডনের হিথরো বিমানবন্দর-গামী কেনিয়ান এয়ারওয়েজের একটি বিমান থেকে মৃতদেহটি এসে পড়ে।

দীর্ঘ চার মাসেরও বেশি সময় পর পরিচয় জানা গেছে নিহত ব্যক্তির। মার্কিন টেলিভিশন চ্যানেল স্কাই নিউজের অনুসন্ধানে উঠে আসে নিহত ব্যক্তি হলেন কেনিয়ার নাইরোবি বিমানবন্দরের পরিচ্ছন্নতাকর্মী পল মানিয়াসি।

মানিয়াসির প্রেমিকা জানিয়েছেন, লন্ডন শহর দেখার বিষয়ে তার প্রেমিকের খুবই আগ্রহ ছিল। এ কারণে হয়তো সে বিমানের চাকার কাছে লুকিয়ে লন্ডন যাওয়ার পরিকল্পনা করে।

যে বাড়ির বাগানে মৃতদেহটি পড়েছিল, সেটির পাশের বাড়ির বাসিন্দা বিবিসিকে বলেন, হঠাৎ ‘ধপাস’ করে পতনের জোর একটি শব্দ শুনে দোতলার জানালা থেকে বাইরে তাকিয়ে পাশের বাড়ির বাগানে একটি মৃতদেহ দেখতে পান। “বাগানের দেয়ালে ভরা ছিল রক্ত।”

“আমি দ্রুত বাইরে বেরিয়ে দেখি আমার প্রতিবেশীও বাইরে বেরিয়ে আসছে। ভয়ে কাঁপছিল সে।”

এত ওপর থেকে পড়লেও মৃতদেহটি ছিন্নভিন্ন হয়ে যায়নি। ঐ ব্যক্তি বলেন, “মৃতদেহটি যে ছিন্নভিন্ন হয়নি তার প্রধান কারণ সেটিকে একটি বরফের দলার মত দেখাচ্ছিল।”

বিমানের ল্যান্ডিং গিয়ারের খোপের ভেতর একটি ব্যাগ, পানি এবং কিছু খাবার পাওয়া যায়।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply