বন্ধ হতে পারে অনেক ইউটিউব চ্যানেল

|

বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় এবং বহুল পরিচিত ভিডিও স্ট্রিমিং প্ল্যাটফরম ইউটিউব সম্প্রতি তাদের ‘টার্মস অব সার্ভিস’ নীতিমালায় পরিবর্তন এনেছে। গত সপ্তাহে, ব্যবহারকারীদের কাছে নোটিফিকেশন পাঠিয়ে নতুন ‘টার্মস অব সার্ভিস’ সম্পর্কে জানিয়ে দেয় ইউটিউব। নতুন এ নীতিমালার একটি শর্ত ‘অ্যাকাউন্ট সাসপেনশন অ্যান্ড টার্মিনেশন’ দেখে ইউটিউবের কিছু কনটেন্ট ক্রিয়েটরের মধ্যে অ্যাকাউন্ট হারানোর আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। ‘অ্যাকাউন্ট সাসপেনশন অ্যান্ড টার্মিনেশন’ নামের একটি বিভাগে লেখা হয়েছে, যদি ব্যবহারকারীর কাছ থেকে অর্থ আয় না করতে পারে তাহলে অ্যাকাউন্ট ডিলিট করে দেবে ইউটিউব। এ নিয়ম কার্যকর হবে আগামী ১০ ডিসেম্বর থেকে।

‘টার্মস অব সার্ভিস’ এ লেখা রয়েছে, অ্যাকাউন্ট থেকে আপলোড করা ভিডিও বা লাইভ স্ট্রিমিং ভিডিওর বিজ্ঞাপন থেকে যথেষ্ট পরিমাণ আয় না হলে কনটেন্ট ক্রিয়েটরদের অ্যাকাউন্ট ডিলিট করার ক্ষমতা রাখে ইউটিউব। তবে লেখাটি ইউটিউবার ও ব্যবহারকারীদের কাছে স্পষ্ট কোনো বার্তা দেয়নি। শুধু কনটেন্ট ক্রিয়েটরদের জন্য নাকি সব ইউটিউব অ্যাকাউন্টধারীদের জন্যও এ নিয়ম প্রযোজ্য হবে সে সম্পর্কে তারা এখনও অন্ধকারে আছেন। এর আগে ২০১৮ সালে মনিটাইজেশন নীতিমালায় পরিবর্তন আনে ইউটিউব। সেবার ইউটিউব ভিডিও থেকে অর্থ আয়ের জন্য কঠোর নিয়ম বেঁধে দেয়া হয়। বিশাল সংখ্যক সাবস্ক্রাইবার সমৃদ্ধ ইউটিউব চ্যানেলগুলোর জন্য শর্তগুলো কঠিন ছিল না। কিন্তু ছোট খাটো ইউটিউব চ্যানেলগুলোর অর্থ আয়ের জন্যও একই মানদণ্ড নির্ধারণ করায় অখ্যাত অনেক ইউটিউব কনটেন্ট ক্রিয়েটরের চ্যানেল বন্ধ হয়ে যায়।









Leave a reply