ধর্ষণের পর হত্যা করে লাশ বটগাছে ঝুলিয়ে রাখলো দুর্বৃত্তরা

|

স্টাফ রিপোর্টার, নাটোর
নাটোরের বড়াইগ্রামে হালিমা খাতুন নামে ১২ বছরের এক কিশোরীকে ধর্ষণের পর হত্যার অভিযোগ উঠেছে। রোববার রাতে উপজেলার গারফা এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে সোমবার সকালে লাশটি উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত হালিমা একই এলাকার হাছেন আলীর মেয়ে ।
পরিবারের লোকজন জানান, রবিবার সন্ধ্যায় প্রতিবেশী মুসা দেওয়ানের ছেলে লাদেন দেওয়ান অন্য এক যুবককে সাথে নিয়ে হালিমাকে ডেকে নিয়ে যায়। এরপর থেকেই হালিমা নিখোঁজ ছিল। মধ্যরাতে জেলেরা মাছ ধরতে গিয়ে বিলের মধ্য বটগাছের সাথে ঝুলন্ত অবস্থায় হালিমার মরদেহ দেখতে পায়। হালিমার স্বজনদের অভিযোগ, তার মেয়েকে ধর্ষণের পর পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে। ঘটনার পর থেকেই পলাতক রয়েছে লাদেন দেওয়ান সহ তার পরিবারের সদস্যরা।

বড়াইগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা দিলিপ কুমার দাস ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। হালিমার মরদেহ উদ্ধার করে সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। ময়নাতদন্ত রিপোর্ট হাতে পেলে হালিমার মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে বলে জানায় পুলিশ।









Leave a reply