গলায় সাপ পেচানো অবস্থায় পাওয়া গেল সর্পপ্রেমী নারীর লাশ

|

An autopsy was performed on Laura Hurst, the Indiana woman who was found with an 8-foot python around her neck on Wednesday night, and coroners determined her cause of death was asphyxiation due to strangulation by a snake, according to a release from Indiana State Police.

গলায় পাইথন জড়ানো অবস্থায় ঘরের মেঝেতে পড়ে রয়েছেন এক নারী। গোটা বাড়িজুড়ে ঘোরাফেরা করছে অন্তত ১৪০টি সাপ। এরকমই মর্মান্তিকভাবে মৃত্যু হল এক মার্কিন নারী। লরা হার্স্ট। মধ্য আমেরিকার ইন্ডিয়ানার ওক্সফোর্ডের বাসিন্দা তিনি। সর্পপ্রেমী এই মানুষটির প্রাণ নিল সেই সাপই।

পুলিশের তরফ থেকে কিম রিলে জানাচ্ছেন, লরার পাশের বাড়ি থেকে এমন ভয়ংকর অবস্থায় তার মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়।

দেখা যায়, প্রায় আড়াই মিটার (আট ফুট) দীর্ঘ একটি পাইথন জড়িয়ে রয়েছে তার গলায়। চিকিৎসকরা তার গলা থেকে সেই পাইথন ছাড়ানোর চেষ্টাও করেন। কিন্তু সেটি এমনভাবেই তার গলা জাপটে ছিল, যে তাকে কোনওভাবেই আলাদা করা যায়নি।

পাইথনে কোনও বিষ নেই। আফ্রিকা, এশিয়া ও অস্ট্রেলিয়ায় মোট ৩০ ধরনের পাইথন পাওয়া যায়। যাদের মধ্যে কিছু পাইথন দৈর্ঘ্যে বেশ লম্বা। তাদের দাঁতই আসল অস্ত্র। আক্রান্তকে এমনভাবে কামড়ায়, যে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়েও মৃত্যু হতে পারে। তবে এক্ষেত্রে ঠিক কী ঘটেছিল, তা এখনও স্পষ্ট নয়।

এক সংবাদমাধ্যমকে রিলে বলেন, “মৃতদেহ দেখে মনে হচ্ছে, দীর্ঘক্ষণ সেই বিরাট সাপটির সঙ্গে লড়াই করেছিলেন লরা। তবে ময়নাতদন্ত না হওয়া পর্যন্ত মৃত্যু নিয়ে বিস্তারিত কিছু বলা যাবে না।” প্রশ্ন হল, যে বাড়িটিতে মানুষের বাস, সেখানে এত সাপ কী করছিল?









Leave a reply