কুষ্টিয়ায় মিরাজুল হত্যা মামলায় দুইজনের যাবজ্জীবন

|

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি:

কুষ্টিয়ার মিরপুর থানায় দায়েরকৃত মিরাজুল হত্যা মামলায় অভিযুক্ত দুই আসামীকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছে আদালত।

আজ বুধবার সকাল ১১টায় কুষ্টিয়া জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক অরূপ কুমার গোস্বামী দণ্ডবিধির ৩০২ ধারায় দোষী সাব্যস্ত করে পলাতক আসামী কামাল হোসেনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও ২০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড, অনাদায়ে ১ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড ও দণ্ডবিধির ৩০২/৩৪ ধারায় দোষী সাব্যস্ত করে অপর আসামী কামরুল ইসলামকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও ২০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড, অনাদায়ে ১ বছর সশ্রম কারাদণ্ডাদেশের আদেশ দেন।

আসামীরা হলেন কুষ্টিয়ার মিরপুর থানার পুটিমারী গ্রামের কোরমান আলীর ছেলে কামাল হোসেন(পলাতক) ও একই গ্রামের মো: মুন্তাজের ছেলে কামরুল ইসলাম। একই সাথে অভিযোগ প্রমাণ না হওয়ায় ৩ আসামীকে বেকসুর খালাস দিয়েছে আদালত।

আদালত সূত্রে জানা যায়, ভুক্তভোগী মিরাজুলের সাথে দণ্ডপ্রাপ্ত কামাল হোসেনের স্ত্রী রুপালী খাতুনের পরকীয়ার সম্পর্কের অভিযোগে ২০১৪ সালের ৪ জুলাই মিরাজুলকে তার বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে পিটিয়ে হত্যা করা হয়। এই ঘটনায় নিহতের স্ত্রী তাসলিমা বেগম বাদী হয়ে মিরপুর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মিরপুর থানা পুলিশ ২০১৫ সালের ২৮ মে আদালতে চার্জশীট জমা প্রদান করেন।

কুষ্টিয়া জজ কোর্টের পিপি অ্যাড. অনুপ কুমার নন্দী রায়ের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, এই মামলায় দুইজন আসামীকে দণ্ডাদেশ দিয়েছে আদালত একই সাথে অভিযোগ প্রমাণ না হওয়ায় তিনজন আসামীকে বেকসুর খালাসের আদেশ দিয়েছেন আদালত। এই মামলায় আসামী পক্ষের আইনজীবী ছিলেন অ্যাড. মির্জা লোকমান হোসেন বেগ।









Leave a reply