কাশ্মিরে পাক-ভারত পাল্টাপাল্টি হামলা

|

রোববার ভারত অধিকৃত কাশ্মিরে হামলার জবাব দিতে আজ পাক সীমানায় থাকা আজাদ কাশ্মিরে হামলা চালিয়েছে ভারতীয় সেনাবাহিনী।

এঘটনায় একে অপরের উপর দায় চাপিয়েছে উভয় সেনাবাহিনী।

সেনাবাহিনীর বরাত দিয়ে ভারতীয় গণমাধ্যম জানায়, রোববার ভোরে জম্মুর কুপওয়ারার তাংধার সেক্টরে অস্ত্রবিরতি চুক্তি লঙ্ঘন করে ব্যাপক গোলাবর্ষণ শুরু করে পাকিস্তানি সেনা বাহিনী।

পাকিস্তানের দাবী ওই হামলায় অন্তত ৯ ভারতীয় সেনার মৃত্যু হয়। এরপরই আজাদ কাশ্মীরের নিলম উপত্যকা লক্ষ্য করে মর্টার হামলা চালায়, ভারতীয় সেনারা। এসময় জঙ্গিদের একাধিক ঘাঁটি ধ্বংস হয় বলে দাবী করে ভারত। নিহত হয় অন্তত ১০ পাকিস্তানি সেনা। গোলাগুলির পরপরই সেনা সংখ্যা বৃদ্ধি করে দু’পক্ষই।

ভারতের সেনাপ্রধান জেনারেল বিপিন রাওয়াত বলেন, নিয়ন্ত্রণ রেখা পার হয়ে পাকিস্তানই আগে হামলা চালিয়েছে। অস্ত্রবিরতীও লঙ্ঘন করেছে তারা। তবে ভারতীয় সেনা বাহিনী মোক্ষম জবাব দিয়েছে। আমাদের অভিযানে অন্তত ১০ পাকিস্তানি সেনার মৃত্যু হয়েছে। সন্ত্রাসীদের একাধিক ঘাঁটিতেও হামলা চালানো হয়েছে।

এদিকে ভারতীয় সেনাবাহিনীর এই দাবি অস্বীকার করে আজাদ কাশ্মিরের প্রধানমন্ত্রী রাজা মুহাম্মদ ফারুক হয়দার খান এক টুইটে বলেন, মর্টারের গোলা নিক্ষেপ করে জঙ্গি ঘাটি ধ্বংস করার ভারতীয় বক্তব্য বালাকোটে হামলা করে জঙ্গি ঘাটি গুড়িয়ে দেয়ার মতোই একটি রাবিশ বক্তব্য। আজাদ কাশ্মির ভারত অধিকৃত কাশ্মিরের মতো সংরক্ষিত নয় বরং এটি সবার জন্য উন্মুক্ত এখানে বিদেশি সংবাদ মাধ্যম ও পর্যবেক্ষকদের আসতে কোন বাধা নেই তারা এসে দেখে যাক ভারতীয় দাবি কতটা মিথ্যা।

অন্যদিকে পাক আন্ত:বাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তরের মুখপাত্র লে. জেনারেল আসিফ গফুর বলেন, আমাদের একজন সেনা এবং দুইজন বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছে। আর ভারতীয়রা সাদা পতাকা উড়িয়ে তাদের মৃত সেনা ও নাগরিকদের নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নিতে শুরু করেছে।


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply