বিদ্যুত সংযোগ দেয়ার নামে নেয়া টাকা জনসম্মুখে ফেরত দিলো প্রতারক

|

স্টাফ রিপোর্টার,নেত্রকোনা
বিদ্যুত সংযোগ দেয়ার নামে নেত্রকোনার কলমাকান্দায় গ্রামের সহজ-সরল মানুষের কাছ থেকে হাতিয়ে নেয়া লক্ষাধিক টাকা জনসম্মুখে ফিরিয়ে দিয়েছে মোস্তাক হোসেন গোলাপ নামের এক প্রতারক।

মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার খারনৈ ইউনিয়নের বাউসাম বাজারে গোলাপ প্রশাসন ও জনপ্রতিনিধিদের মাধ্যমে ১ লাখ ১৯ হাজার টাকা ঊনআশি জন গ্রাহকের নিকট ফেরত দেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন- কলমাকান্দা উপজেলার চেয়ারম্যান আব্দুল খালেক, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) জাকির হোসেন, থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাজহারুল করিম, পল্লী বিদ্যুতের জেনারেল ম্যানেজার (জিএম) মো. মজিবুর রহমান, নির্বাহী প্রকৌশলী শেখ জিয়াউর রহমান, ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার (ডিজিএম) আবুল কালাম আজাদ, মো. মনির হোসেন (কারিগরি), সহকারী জেনারেল ম্যানেজার (এজিএম) মো. আনিছুল হক প্রমূখ।

ইউএনও জাকির হোসেন জানান, বাউসাম গ্রামের প্রতারক গোলাপ পল্লী বিদ্যুতের ঠিকাদার মজিবুর রহমানের যোগসাজশে বিদ্যুত সংযোগ দেয়ার নামে সাধারণ মানুষের কাছ থেকে ১ লাখ ১৯ হাজার টাকা নিয়েছিলেন।

কলমাকান্দা উপজেলার খারনৈ ইউনিয়নের তিনটি গ্রাম তথা বিশ্বনাথপুর, লহ্মীপুর ও বৈঠাখালি গ্রামের ৭৯ জন গ্রাহকের কাছ থেকে লক্ষাধিক ওই টাকা নেন তারা।

টাকা নেয়ার দুই বছর পেরিয়ে গেলেও বিদ্যুত না পেয়ে গ্রাহকদের মধ্যে চরম প্রতিক্রিয়া দেখা দেয়। পরে জনপ্রতিনিধি ও প্রশাসন সোচ্চার হয়ে গোলাপের ওপর চাপ সৃষ্টি করলে মঙ্গলবার টাকা ফেরত দিতে বাধ্য হন।

পল্লী বিদ্যুতের জেনারেল ম্যানেজার (জিএম) মো. মজিবুর রহমান বলেন- বিদ্যুত সংযোগ পেতে কোনো দালাল ধরতে হয় না। ৪৫০ টাকায় একজন গ্রাহক বিদ্যুত সংযোগ পেতে পারেন।
টাকা ফেরত দেয়া প্রতারক গোলাপ ও অভিযুক্ত ঠিকাদার মজিবুরের বিরুদ্ধে আলোচনা সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply