যে গ্রামের পুরুষরা রান্নায় পারদর্শী!

|

অনেকে মনে করেন রান্না করা আসলে নারীর কাজ। এই ধারণা ভুল প্রমাণ করেছে ভারতের তামিলনাড়ু রাজ্যের রমানাথাপুরাম জেলার কালায়ুর গ্রামের পুরুষরা। এ গ্রামের প্রাপ্তবয়স্ক সব পুরুষ রান্নায় পারদর্শী!

কালায়ুরে ঢুকলেই ভেসে আসে নানান রকমের মসলার সুগন্ধ। এই গ্রামের পুরুষরা যেমন ভোজনরসিক, তেমনি প্রত্যেকে রন্ধনশিল্পী। প্রত্যেক পুরুষই দারুণ রান্না করতে পারেন।

দক্ষিণ ভারতে গ্রামটি ভোজনরসিকদের স্বর্গ হিসেবে পরিচিত। এখানকার খাবারগুলোর স্বাদ অমৃতের মতো!

এই গ্রামের বিশেষত্ব হলো- প্রতিটি বাড়িতে রান্নায় পারদর্শী কেউ না কেউ আছে। সারাভারতের সেরা পুরুষ রন্ধনশিল্পীদের প্রায় ২০০ জনের বসবাস গ্রামটিতে!

প্রায় ৫০০ শতাব্দী আগে এই অঞ্চলের বাসিন্দা ধনী বণিক সম্প্রদায় রান্নার কাজ দেয় নিম্ন বর্ণের ভানিয়ার গোষ্ঠীকে। তারা রান্নাবান্নায় দক্ষ ছিল। ব্রাহ্মণ রন্ধনশিল্পীদের চেয়ে ভানিয়ারদের বানানো খাবারের সুনাম ছিল তুলনামূলক বেশি।

সেই সময় কৃষিকাজ তেমন লাভজনক ছিল না। পুরুষদের অন্য কোনো কাজে দক্ষতা না থাকায় রান্নার প্রতি আগ্রহ জন্মে। এভাবেই তাদের খাবার তৈরিতে পারদর্শী হওয়ার ঐতিহ্য শুরু হয়।

তামিলনাড়ুর কালায়ুর গ্রাম তামিলনাড়ুর চেন্নাই ও মাদুরাই কিংবা অন্ধ্রপ্রদেশের তিরুপতি বেড়াতে গেলে কালায়ুর গ্রামের পুরুষদের রান্না করা খাবারের স্বাদ নিতে পারেন ভ্রমণপিপাসুরা। এ ছাড়া গ্রামটিতে গেলেও সেই সুযোগ হতে পারে।

সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply