যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যা

|

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে যৌতুকের দাবিতে কুলসুম (১৯) নামে এক গৃহবধূকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে তার স্বামী শাহ আলমের বিরুদ্ধে। সোমবার (১৪ অক্টোবর) সকালে স্থানীয় কড়ইতলা পাচানি পাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত কুলসুম একই ইউনিয়নের মানিকপুর গ্রামের আব্দুল হকের মেয়ে। তিনি এক সন্তানের জননী। নিহতের পরিবারের দাবি তাকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে।

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। এ সময় নিহতের শ্বশুর মৃত সুরুজ মিয়ার ছেলে জলিল ও তার স্ত্রী কুলসুমকে আটক করে পুলিশ। তবে এ ঘটনার পর থেকে নিহতের স্বামী পলাতক রয়েছেন।

নিহতের বড় ভাই শেখ ফরিদ জানান, গত দুই বছর আগে মানিকপুর এলাকার মৃত আব্দুল হকের মেয়ে কুলসুমকে পারিবারিকভাবে বিয়ে দেয়া হয়। তাদের দাম্পত্য জীবনে এক সন্তানের জম্ম নেয়। সোমবার সকালে বোনের শ্বশুর বাড়ি থেকে খবর আসে বোন অসুস্থ হওয়ায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়েছে। হাসপাতালে গিয়ে দেখেন বোনের মৃতদেহ পড়ে রয়েছে।

তিনি অভিযোগ করেন, বিয়ের সময় নগদ এক লাখ টাকা, ফার্নিচারসহ প্রায় দুই লাখ টাকার মালামাল দেয়া হলেও আমার বোন শাহ আলমের নির্যাতন থেকে রক্ষা পায়নি।

আড়াইহাজার থানার ওসি নজরুল ইসলাম বলেন, পারিবারিক কলহের জের ধরে এ ঘটনাটি ঘটেছে। লাশ ময়না তদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের প্রতিবদেন পেলে কিভাবে মৃত্যু হয়েছে তা জানা যাবে।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply