সৌদি সফরে পুতিন, মধ্যপ্রাচ্যে রুশ প্রভাব আরও সংহত

|

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বলেছেন, ইরান এবং আরব বিশ্বের সঙ্গে ভালো সম্পর্ক থাকায় রাশিয়া মধ্যপ্রাচ্যে মূখ্য ভূমিকা পালন করতে পারে। রোববার সৌদি আরবের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন চ্যানেল আল-আরাবিয়াকে দেয়া সাক্ষাৎকারে তিনি এ মন্তব্য করেন।

গত এক দশকের বেশি সময় পর আজ সোমবার সৌদি আরবে একদিনের সফরে যাচ্ছেন রুশ প্রেসিডেন্ট। এই সফরে দুই দেশের মাঝে দশটির বেশি প্রকল্প চুক্তি সাক্ষরিত হতে পারে। সফরটিকে মধ্যপ্রাচ্যে রুশ প্রভাব আরও সংহত হওয়ার নিদর্শন হিসেবে দেখছেন বিশ্লেষকরা।

সফরের আগে রোববার আল-আরাবিয়াকে দেয়া সাক্ষাৎকারে পুতিন বলেন, সৌদি আরবের যুবরাজ ও ডি ফ্যাক্টো নেতা মোহাম্মদ বিন সালমানের সঙ্গে “অত্যন্ত বন্ধুত্বপূর্ণ ব্যক্তিগত সম্পর্ক” রয়েছে রাশিয়ার।

পুতিন বলেন, সৌদি আরবে নতুন বিনিয়োগের ব্যাপারে পর্যালোচনা করছে রাশিয়া। সৌদি আরবের এক বিলিয়ন মার্কিন ডলারের বেশি বিনিয়োগের লক্ষ্যে রুশ কোম্পানি সিবুর হোল্ডিং একটি পেট্রোকেমিক্যাল কমপ্লেক্স নির্মাণের জন্য মুখিয়ে আছে।

রাশিয়ার এই প্রেসিডেন্ট বলেন, সৌদি আরব অথবা সংযুক্ত আরব আমিরাতের কেউই ইরানের সঙ্গে সংঘাত চান না। ইসরায়েল এবং মিসরের সঙ্গে একটি মুক্ত বাণিজ্যিক অঞ্চল তৈরি করতে কাজ করছে রাশিয়া। একই ধরনের বাণিজ্যিক অঞ্চল ইরানের সঙ্গেও গড়ে তোলা হবে।

ইরানের ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচিকে দেশটির পারমাণবিক কর্মসূচির সঙ্গে তুলনা করা উচিত নয় বলে মন্তব্য করেন পুতিন। তিনি বলেন, এটা সম্ভব এবং ইরানের ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচি নিয়ে আমাদের আলোচনা করা উচিত…কিন্তু ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচি এক জিনিস এবং পারমাণবিক অন্য জিনিস।









Leave a reply