শিশুর ভাঙা পা রেখে ভালো পায়ে প্লাস্টার!

|

নেত্রকোনা প্রতিনিধি:

নেত্রকোনার মোহনগঞ্জ হাসপাতালে ভুল চিকিৎসার শিকার প্রীতম নামে চার বছরের এক শিশু।

বুধবার বিকালে খালীয়াজুরী উপজেলার চাকুয়া ইউনিয়নের পাথরা গ্রামে পরিতোষ সরকার তার চার বছরের শিশু সন্তান প্রীতমের ডান পা ভাঙ্গা অবস্থায় মোহনগঞ্জ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে আসেন। ডা. সুবীর সরকার প্রীতমের ডান পা ভাঙ্গা চিকিৎসায় প্লাস্টারের জন্য জরুরী বিভাগে পাঠালে ডিউটিরত ডা.তানভীর হাসান জরুরী বিভাগে উপস্থিত না থাকায় ওয়ার্ডবয় জামাল মিয়া বিষয়টি লক্ষ‍্য না করেই রোগীর ভাঙ্গা পা রেখে ভালো পা প্লাস্টার করে দেয়।

রাতে শিশুটির অবস্থার অবনতি হলে বৃহস্পতিবার সকালে তাকে নিয়ে তার বাবা মোহনগঞ্জ হাসপাতালে পুনরায় আসেন। জরুরী বিভাগের ময়না নামে চতুর্থ শ্রেণির এক কর্মচারী প্রীতমের ভাল পায়ের প্লাস্টার খোলে ভাঙ্গা পা প্লাস্টার করে দেয়।

টি এইচ ও নুর মোহাম্মদ শামছুর আলম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন,এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply