চাকরি দেয়ার নামে নারীর সাথে অনৈতিক কাজ: পল্টন থানার ওসি বরখাস্ত

|

চাকরি দেয়া ও বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে এক নারীর সাথে অনৈতিক কাজের অভিযোগে রাজধানীর পল্টন থানার ওসি মাহমুদুল হককে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। সোমবার রাতে তাকে বরখাস্ত করা হয়।

মতিঝিল বিভাগের ডিসি মো. আনোয়ার হোসেন জানান, এক নারীর সঙ্গে অনৈতিক সম্পর্কের অভিযোগের একটি তদন্ত বোর্ড গঠন করা হয়। এ সংক্রান্ত প্রতিবেদন সদর দপ্তরে পাঠানো হয়। প্রতিবেদনের ভিত্তিতে তাকে সাসপেন্ড করা হয়েছে।

সাময়িক বরখাস্ত করার পাশপাশি পুলিশ পরিদর্শক মাহমুদুল হকের বিরুদ্ধে একটি বিভাগীয় মামলা করা হবে বলেও জানা গেছে।

এ বিষয়ে পল্টন থানার ওসি মাহমুদুল হক সাংবাদিকদের বলেন, আমি ষড়যন্ত্রের শিকার। এর বেশি কিছু বলার নাই।

এক নারী গত আগস্টের শুরুতে পুলিশ সদর দপ্তরে ওসি মাহমুদুলের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ করলে মতিঝিল বিভাগের অতিরিক্ত উপ কমিশনার মোনালিসা বেগমকে তদন্তের দায়িত্ব দেওয়া হয়।

তদন্তে অভিযোগের ‘কিছু সত্যতা’ পাওয়া গেলে সে অনুযায়ী পুলিশ সদর দপ্তরে প্রতিবেদন জমা দেন বলে জানান মোনালিসা। তার ওই প্রতিবেদনের ভিত্তিতেই ওসি মাহমুদুলকে সাময়িক বরখাস্ত করা হল।

ওই নারীর অভিযোগ, ২০১৭ সালের সেপ্টেম্বর মাসে তাকে চাকরি দেওয়ার কথা বলে নওগাঁ থেকে ঢাকায় নিয়ে আসেন ওসি। ঢাকায় ওই নারীকে একটি হোটেলে তোলেন ওসি মাহমুদুল ।

সেখানে খাবারের সঙ্গে ‘চেতনানাশক জাতীয় কিছু খাইয়ে তাকে ধর্ষণ করেন’ ওই পুলিশ কর্মকর্তা।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply